ঢাকা, রবিবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘সাহিত্য পর্দায় তুলে আনা একটু কঠিন’

আমিনুল ইসলাম শান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১১ ৮:২৬:৩৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-১১ ১১:৫৬:৫৪ এএম
‘যদি জানতে’ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের দৃশ্যে হিমি, ইয়াশ

বিনোদন ডেস্ক: তরুণ নির্মাতা লস্কর নিয়াজ মাহমুদ নির্মাণ করেছেন স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘যদি জানতে’। চলচ্চিত্রটির কেন্দ্রীয় দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইয়াশ রোহান ও জান্নাতুল সুমাইয়া হিমি। শুটিং শেষে এখন সম্পাদনার কাজ চলছে।

ইমতিয়াজ মাহমুদের ‘বই’ কবিতা অবলম্বনে চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য রচনা করেছেন লস্কর নিয়াজ মাহমুদ। রাইজিংবিডিকে এ পরিচালক বলেন, ‘‘চলচ্চিত্রটির গল্প ও চিত্রনাট্য আমি তৈরি করেছি। এই গল্পের কেন্দ্রীয় চরিত্র বইপাগল একজন কবি। ‘বই’ কবিতা ছাড়াও এতে আমার ও ইমতিয়াজ মাহমুদের লেখা আরো কয়েকটি কবিতা ব্যবহার করেছি।’’

 

 

৪০ মিনিট দৈর্ঘ্যের এ চলচ্চিত্রের গল্প বর্তমান প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়নি। অর্থাৎ সময়টা প্রযুক্তি বা মুঠোফোনের যুগের না, বরং গল্পে দেখা যাবে— নায়ক যোগাযোগের জন্য চিঠি ব্যবহার করছেন, চিঠির জন্য অপেক্ষা করছেন। সে হিসেবে গল্পের সময় নব্বই দশক ধরা যেতে পারে বলে জানান নির্মাতা।

নব্বই দশকের পরিবেশ তুলে আনার জন্য বাড়তি আয়োজন প্রসঙ্গে লস্কর নিয়াজ মাহমুদ বলেন, ‘আমরা রিয়েল লোকেশনে শুটিং করেছি। গল্পের জন্য নদী প্রয়োজন ছিল। এ জন্য  ঝালকাঠিতে শুটিং করেছি। ঝালকাঠির কিছু পুরোনো বাড়ি-ঘর ব্যবহার করেছি। আসলে মফস্বলের অলিগলি পুরোনো আমলের হিসেবে উপস্থাপন করাটাও সহজ হয়। তাই আমরা এগুলো ব্যবহার করেছি। কিছু শুটিং পুরান ঢাকায়ও করেছি।’

 

 

নির্মাণ কাজ প্রসঙ্গে পরিচালক বলেন, ‘কাজটি ভালো করার চেষ্টা করেছি। কবিতা বা সাহিত্য পর্দায় তুলে আনা একটু কঠিন। কারণ, যা ভাবছি তা হয়তো তুলে আনা যায় না। তা ছাড়া বাজেট একটা বিষয়। আমরা যে বাজেট পেয়েছি সেটা একটা টেলিভশন প্রোডাকশনের জন্য খুব ভালো কিন্তু যখন প্রোডকশনটিকে চলচ্চিত্র বলছি, তখন তার বাজেট চলচ্চিত্রের অন্তত তিন ভাগের এক ভাগ হওয়া দরকার। চলচ্চিত্রে যা কিছু ব্যবহার করা হয়ে থাকে আমরাও সেসব ব্যবহার করেছি। তবু বাজেট আরেকটু বেশি হলে আরো একটু বেশি মনোযোগী হতে পারতাম। চলচ্চিত্রটি দেখে দর্শক হয়তো বলতে পারেন গল্পের এটা ভালো লাগেনি কিংবা এটা করলে ভালো হতো। সেটা দর্শক বলতেই পারেন। কিন্তু সবকিছু মিলিয়ে আমরা নির্মাণ কাজ ভালো করেছি।’

তরুণ চলচ্চিত্রকার খুঁজে বের করার প্রতিযোগিতা মেরিল–প্রথম আলো ফেইম ফ্যাক্টরির প্রথম আসরের চূড়ান্ত তিনটি চলচ্চিত্রের একটি ‘যদি জানতে’। ইয়াশ-হিমি ছাড়াও চলচ্চিত্রটিতে আরো বেশ কিছু চরিত্র রয়েছে, যেগুলো রূপায়ন করেছেন বিভিন্ন নাট্যদলের সদস্যরা। ভিএফএক্সের কাজ শেষ করে আগামী সপ্তাহে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানে চলচ্চিত্রটি জমা দিবেন নির্মাতা।

 

 

চলচ্চিত্রটির মুক্তি প্রসঙ্গে এ পরিচালক বলেন, ‘প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আমরা তিনজন চলচ্চিত্র নির্মাণের সুযোগ পেয়েছি। এই তিন চলচ্চিত্র মিলিয়ে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেওয়ার কথা বলেছিলাম। কিন্তু প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান রাজি হয়নি। আগামী ডিসেম্বরে টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারের পরিকল্পনা করেছেন। তার আগে বেশ কিছু চলচ্চিত্র উৎসবে আমরা এটি প্রদর্শন করব।’ 


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯/শান্ত

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন