ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ মাঘ ১৪২৬, ২৩ জানুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

হিন্দুর চেয়ে মুসলমানের জরিমানা ২০০ গুণ বেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-১০ ৭:০০:৫৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-১০ ৭:০০:৫৪ পিএম

ধর্মীয় বিদ্বেষ থেকে প্রায় এক বছর আগে ভারতের ভিসা নীতিমালা সংশোধন করা হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। এই নীতিমালায়, ভিসার অতিরিক্ত সময় ভারতে অবস্থান করলে একজন হিন্দু ধর্মাবলম্বীকে যে পরিমাণ জরিমানা দিতে হয় তার তুলনায় একজন মুসলমানকে দিতে হয় তার ২০০ গুণ বেশি।

মঙ্গলবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে,দুই সপ্তাহ আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের কলকাতা সফরের সময় বিষয়টি প্রথম সামনে আসে। ওই সময় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাইফ হাসান ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরও কয়েক দিন সেখানে থেকেছিলেন। তখন তিনি বিষয়টি কলকাতায় বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনে জানান। পরে বিষয়টি নিয়ে ভারতের ফরেনার রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিসের (এফআরআরও) সঙ্গে কথা বলা হয়।

এফআরআরও-এর ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান’ থেকে আসা কোনো সংখ্যালঘু ভিসার মেয়াদের দুই বছরের ‘বেশি অবস্থান করলে’ ৫০০ রুপি, ৯১ দিন থেকে দুই বছরের জন্য ২০০ রুপি কিংবা ৯০ দিন পর্যন্ত থাকলে ১০০ রুপি জরিমানা দিতে হবে।

অন্যদিকে, এই তিন দেশের সংখ্যালঘু গোষ্ঠী ছাড়া অন্য যে কাউকে একই সময়ের জন্য অবস্থান করলে তাকে জরিমানা দিতে হবে যথাক্রমে ৫০০ ডলার (৩৫ হাজার রুপি), ৪০০ ডলার (২৮ হাজার রুপি) ও ৩০০ ডলার (২১ হাজার রুপি)।

এক বাংলাদেশি কর্মকর্তা দ্য হিন্দুকে বলেছেন, ‘এর মানে হচ্ছে, বাংলাদেশ দলের হিন্দু ধর্মাবলম্বী ক্রিকেটার লিটন দাস যদি ভিসার মেয়াদের অতিরিক্ত একদিন ভারতে অবস্থান করেন তাকে জরিমানা দিতে হবে ১০০ রুপি আর সাইফ হাসানকে (ইসলাম ধর্মাবলম্বী ) দিতে হবে ২১ হাজার রুপি’।

বাংলাদেশের এক কূটনীতিক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন,‘সম্প্রতি এক বাংলাদেশি নারীকে ফেরত পাঠানো হয়। তিনি এক দিন অতিরিক্ত অবস্থান করেছিলেন এবং তাকে ২১ হাজার রুপি জরিমানা দিতে বলা হয়। এই অর্থ তার কাছে ছিল না এবং আমরা ডেপুটি হাই কমিশনের কর্মীরা তার জন্য চাঁদা তুলেছিলাম। ধর্মীয় ভিত্তিতে কেন বৈষম্য করা হবে’?

বাংলাদেশ ও পাকিস্তানকে এক কাতারে ফেলা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘ঐতিহাসিক ও নৈতিকভাবে কীভাবে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানকে একই নিয়মের মধ্যে ফেলতে পারে ভারত’।


ঢাকা/শাহেদ