ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ চৈত্র ১৪২৬, ০৯ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

বিশ্বকাপজয়ী অভিষেক জেতালেন ওল্ডডিওএইচএসকে

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-১৫ ৬:১৬:২৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-১৫ ৬:২৭:২৬ পিএম

অঘটন নাকি প্রত্যাশিত জয়! চমকে দেওয়া নাকি স্বাভাবিক কিছু!

ওল্ড ডিওএইচএস ও লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের ম্যাচে যা হলো সেটিকে কি বলা যায়? প্রথম বিভাগ থেকে এবার প্রিমিয়ার লিগে উঠে এল ওল্ড ডিওএইচএস। আর লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ গতবারের রানার্সআপ। অথচ নতুন বছর, নতুন লিগে খুঁজে পাওয়া গেল না পুরোনো রূপগঞ্জকে।

দারুণ ক্রিকেটে বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের প্রথম রাউন্ডে জয় তুলে নিল ওল্ড ডিওএইচএস। বিকেএসপিতে রূপগঞ্জকে ২৫ রানে হারিয়েছে তারা। আগে ব্যাটিং করে ওল্ড ডিওএইচএস ২৩০ রানে গুটিয়ে যায়। মনে হচ্ছিল রূপগঞ্জ জিতে যাবে সহজে। কিন্তু বল হাতে দারুণ লড়াইয়ে রূপগঞ্জকে ২০৫ রানে আটকে দেয় তারা।

জয়ের নায়ক যুব বিশ্বকাপজয়ী পেস বোলিং অলরাউন্ডার অভিষেক দাস। ব্যাট হাতে ১৪ বলে ১৪ এবং বল হাতে ৩ উইকেট নিয়ে দলকে জয়ের স্বাদ দিয়েছেন অভিষেক। শুধু অভিষেক-ই নন, যুব বিশ্বকাপজয়ী আরও দুই ক্রিকেটার আজকের ম্যাচে দ্যুতি ছড়িয়েছেন। মাহমুদুল হাসান জয় ৩৫ বলে করেছেন ৩৫ রান। রাকিবুল ব্যাট হাতে ২ রান করলেও বল হাতে মাত্র ২৮ রানে পেয়েছেন ২ উইকেট।

ব্যাটিংয়ে ওল্ড ডিওএইচএসের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৯ রান করেন আনিসুল ইসলাম ইমন। ৭৬ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় সাজান ইনিংসটি। প্রতিশ্রুতিশীল রানিক আহমেদ মাত্র ২ রানের জন্য হাফ সেঞ্চুরি মিস করেন। ফেরেন ৪৮ রানে। উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান প্রিতম কুমার শেষ দিকে ৩৩ রান তুলে দলকে সম্মানজনক পুঁজি এনে দেন।

রূপগঞ্জের স্পিনার সোহাগ গাজী ৩ উইকেট নিয়ে ছিলেন দলের সেরা বোলার। ২ পেসার আল-আমিন ও শফিউল ২টি করে উইকেট পেয়েছেন।

লক্ষ্য তাড়ায় রূপগঞ্জের শুরুটা আহামরি খারাপ ছিল না। কিন্তু উদ্বোধনী জুটি ভাঙার পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় তারা। মধ্যভাগের কোনো ব্যাটসম্যান পারেনি মাথা তুলে দাঁড়াতে। সাব্বির রহমান ১৮ রানে আউট হয়ে হতাশ করেন। অধিনায়ক নাঈম ইসলাম খুলতে পারেননি রানের খাতা। এক ওভারে জোড়া সাফল্য দেন আলিস আল ইসলাম। এছাড়া আল-আমিন ৭ ও জাকের আলী ফেরেন ২৮ রানে।

একপ্রান্ত আগলে পিনাক ঘোষ রান করে যাচ্ছিলেন। কিন্তু তাকে ৫৩ রানে থামান আব্দুর রশিদ। শেষ দিকে সানজামুলের ৪০ ও সোহাগ গাজীর ৩২ রানে চেষ্টা চালিয়েছিল রূপগঞ্জ। কিন্তু শেষটা রাঙাতে পারেনি গতবারের রানার্সআপরা। ২৫ রানের আক্ষেপ নিয়ে শেষ হয় তাদের ম্যাচ।

অভিষেকের ৩ উইকেটের সঙ্গে আব্দুর রশিদও নেন ৩ উইকেট। ২টি করে উইকেট নেন রাকিবুল ও আলিস আল ইসলাম।

ম্যাচ শেষে ওল্ড ডিওএইচএসের উৎসব ছিল দেখার মতো। ঢাকা লিগের এবারের আসরে প্রথম অঘটনটা তো তারাই ঘটাল।

 

সিলেট/ইয়াসিন/কামরুল