ঢাকা, বুধবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ০৮ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

হাসপাতাল ভুলে যায়নি করোনা রোগীর জন্মদিন!

সাইফ তমাল, সিঙ্গাপুর থেকে : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৭ ৮:১৮:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-০৭ ৮:১৮:৩৬ পিএম

দৈনন্দিন ব্যস্ততার কারণে আমরা অনেকেই জন্মদিন মনে রাখতে পারি না। প্রবাসজীবনে কাজটি আরো কঠিন। অনেক সময় ফেইসবুকের নোটিফিকেশনের কারণে মনে পড়ে জন্মদিনের কথা।

সিঙ্গাপুরে এনজি টেং পোং জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগী হিসেবে চিকিৎসা নিচ্ছেন কিরণ মাহামুদ মান্না ভাই। গত ১ তারিখ ছিল তার জন্মদিন। সেদিন সকালে হাসপাতালের ল্যান্ড ফোন থেকে মান্না ভাইয়ের মোবাইলে কল আসে। রিসিভ করার সঙ্গে সঙ্গে অপর প্রান্ত থেকে হাসপাতালের একজন নার্স মান্না ভাইকে ‘হ্যাপি বার্থ ডে টু ইউ’ বলে শুভেচ্ছা জানায়। হাসপাতালে ভর্তির আগে যাবতীয় পরিচয়পত্র লিপিবদ্ধ করে রাখা হয়। সেখান থেকেই নার্স মান্না ভাইয়ের জন্মদিন জেনে কল দিয়েছে। এ ঘটনায় মান্না ভাই খুব খুশি হন। 

অনেকের ধারণা হাসপাতালে রোগীদের প্রয়োজন মতো সেবা দেওয়া হয় না। তাদের খোঁজখবরও নেওয়া হয় কম। অথচ এই ঘটনা বিশেষ করে এই করোনার সময়ে মান্না ভাইয়ের মনে গভীর দাগ কাটে।

এখানেই শেষ নয়, দুপুরের খাবার খেয়ে মান্না ভাই বিছানায় বসে ছিলেন। এমন সময় তার কেবিনের মাঝখানে একটি টেবিল এনে রাখা হয়। মান্না ভাই ভেবেছিলেন হয়তো চিকিৎসা সরঞ্জামা রাখা হবে। হঠাৎ দেখলেন দশজন নার্স হাতে একটি কেক নিয়ে শুভ জন্মদিন বলতে বলতে তার কেবিনে এসে দাঁড়িয়েছে। তারা টেবিলের উপর কেকটা রাখলেন। নার্সদের গভীর আন্তরিকতা দেখে মান্না ভাইয়ের চোখের কোণে জল জমলো। তিনি চোখের জল মুছতে মুছতে আনন্দে কেক কাটলেন।

আমরা সবসময় জেনে এসেছি, সিঙ্গাপুরের চিকিৎসাসেবা উন্নত। শুধু উন্নত নয়, আন্তরিকও। রোগীদের প্রতি তারা কতোটা আন্তরিক এবং বন্ধুসুলভ এই ঘটনা তার প্রমাণ।  হাসপাতালে একজন সাধারণ করোনা রোগীর জন্মদিনও তারা পালন করে রোগীকে সাহস যোগাতে ভুল করেনি।  


ঢাকা/তারা