ঢাকা, বুধবার, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২০ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ছাদ বাগান গড়ে সাড়া ফেলেছেন ডা. মোতালিব

মামুন চৌধুরী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৩ ২:৪৯:৩০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-২০ ৮:২১:৫৫ পিএম

হবিগঞ্জ সংবাদদাতা: ছাদ বাগান গড়ে সাড়া ফেলেছেন শায়েস্তাগঞ্জের ডা. এম এ মোতালিব। এখন জেলার অনেকেই জানেন তার শখের ছাদ বাগানের খবর।

শায়েস্তাগঞ্জ পৌর ভবনের কাছেই চারতলা ভবনের ছাদে শোভা পাচ্ছে দৃষ্টিনন্দন এই ফলের বাগান। বাগানে আম, পেয়ারা, আপেল কুল, জাম্বুরা, করমচা, ডালিম, লেবুসহ নানা প্রজাতির ফল ও ঔষধি গাছ স্থান পেয়েছে।

জানা গেছে, ডা. মোতালিবের এই ছাদ বাগানের বয়স তিন বছর। বর্তমানে তার বাগানে ৫২টি ফল গাছ রয়েছে। গাছে গাছে ফল আসছে। এসব ফল খেতেও সুস্বাদু। ফল চাষে তিনি কেমিক্যাল ব্যবহার করেন না। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি তিনি শখের ফল বাগানের পরিচর্যায়ও সময় দেন। প্রয়োজনে শ্রমিকদের দিয়েও পরিচর্যা করান।

ডা. মোতালিব বলেন- ‘শুধু ছাদের উপরে নয়, নিচে ভবনের চারপাশেও ফলের গাছ রোপণ করেছি। গাছ ছাড়া পরিবেশ চিন্তা করা যায় না। গাছ আমাদের অনেক কিছু দেয়।  বিশেষ করে বর্তমানে বাজারে কেমিক্যালমুক্ত ফল পাওয়া কঠিন। তাই পরিবেশবান্ধব ফল গাছের চারা সংগ্রহ করে ছাদ বাগানটি তৈরি করেছি। আরো নতুন চারা এনে রোপণ করার চেষ্টা করছি। গাছের ফলগুলো পরিবারের সবাই মিলে খেয়ে তৃপ্তি পাচ্ছি।’

তিনি জানান, সবজি ও ফল চাষের প্রতি তার বরাবরই প্রবল আগ্রহ। এ কারণে তিনি বাড়ির ছাদেই ফলের চাষ করছেন। পারিবারিক জীবনে স্ত্রী ডা. শারমিন আক্তার দীপা, দুই ছেলে দিগন্ত ও দৃষ্টান্ত নিয়ে সংসার। কঠোর শ্রম, অধ্যবসায় ও সততা থাকলে যে কেউ প্রতিষ্ঠিত হতে পারে বলে মনে করেন তিনি। তার দৃষ্টিনন্দন ছাদ-বাগান ইতোমধ্যে অনেকেরই বাহবা কুড়াতে সক্ষম হয়েছে।

ডা. মোতালিবের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানান জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আলী। প্রশংসা করে তিনি বলেন- ‘ফলের পুষ্টিগুণ অনেক। তাই সবার উচিৎ বাড়ি বাড়ি ফল বাগান গড়ে তোলা। বাড়িতে ফল বাগান তৈরি করতে কৃষি বিভাগ সার্বিকভাবে সহযোগীতা করবে।’


রাইজিংবিডি/হবিগঞ্জ/১৩ জুলাই ২০১৯/মো. মামুন চৌধুরী/টিপু

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন