ঢাকা, রবিবার, ২১ চৈত্র ১৪২৬, ০৫ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

বঙ্গবন্ধুর সরকার সর্বপ্রথম ক্ষুদ্রঋণ চালু করে: কৃষিমন্ত্রী

সচিবালয় প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০১-২৭ ৬:০৪:২৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০১-২৭ ৬:০৪:২৬ পিএম

বঙ্গবন্ধুর সরকারই সর্বপ্রথম ক্ষুদ্রঋণ প্রথা চালু করেন বলে মন্তব‌্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।

গাজীপুরের বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটে (বারি) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধনের সময় কৃষিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু  ম্যুরালের উদ্ভোধন করেন কৃষিমন্ত্রী ড.মো: আব্দুর রাজ্জাক।

এসময় মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি কার্যক্রম জোরদারকরণের জন্য ‘‘কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে’’ এ স্লোগান তুলে সবুজ বিপ্লবের ডাক দিয়েছিলেন। কৃষি গ্রাজুয়েটদেরকে প্রথম শ্রেণির মর্যাদা দিয়েছিলেন, যাতে করে মেধাবী ছাত্ররা কৃষি শিক্ষায় অনুপ্রাণিত হয়। তাঁর দূরদৃষ্টিসম্পন্ন এ সিদ্ধান্তের ফলে কৃষি ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হওয়ার দ্বার উন্মোচিত হয়েছিল। ’

তিনি বলেন, দেশ স্বাধীনের পর ২২ লাখ কৃষক পরিবারকে পুনর্বাসিত করেছিলেন কৃষক দরদী সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু। বিনামূল্যে বা নামমাত্র মূল্যে তিনি উন্নত বীজ, সার, কীটনাশক ইত্যাদি সরবরাহ করেছিলেন। তিনি শিক্ষিত যুবকদেরকে গ্রামে ফিরে গিয়ে আধুনিক পদ্ধতিতে কৃষি কাজ করার জন্য প্রেরণা দিয়েছিলেন। উদ্বুদ্ধ করেছিলেন যেন আমাদের দেশের উর্বর মাটির এক ইঞ্চিও অনাবাদি না থাকে। বঙ্গবন্ধু সরকারই সর্বপ্রথম গ্রামের দরিদ্র বৃদ্ধ মানুষের জন্য ক্ষুদ্র ঋণ প্রথা চালু করেছিলেন। কৃষকদের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করার জন্য তিনি ধান, পাট, আখ সহ কৃষি পণ্যের বিক্রয়মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছিলেন। ’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের চেতনা ও মানসপটে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিভূকে চিরজাগ্রত রাখার প্রত্যয়ে বিএআরআই এর অঙ্গনে স্থাপিত ম্যুরাল প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞানী, কর্মকর্তা, কর্মচারী, শ্রমিকসহ সকলকে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত করবে ও কর্মপ্রেরণা যোগাবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন করতে পেয়ে আমি গর্বিত। ’

কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামান এর সঞ্চলনায় মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


ঢাকা/আসাদ/সাজেদ