ঢাকা, বুধবার, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

আবারও সোনা জিতলেন ‌মা‌বিয়া

ক্রীড়া প্রতিবেদক, নেপাল থে‌কে : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৭ ১২:৩৭:৫৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৮ ১০:৪৮:১৮ এএম
ছবি: আমিনুল ইসলাম

এসএ গেমসের গত আসরে সোনা জেতার পর কেঁদে আলোচিত হয়েছিলেন ভারোত্তোলক মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। পদক গ্রহণের সময় তার ডুকরে কাঁদার ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। আবারও পদকের মঞ্চে সবার ওপরে দাঁড়ানোর সুযোগ পেলেন তিনি।

এবারের এসএ গেমসে শনিবার পোখরায় মেয়েদের ভারোত্তোলনে ৭৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে সোনা জিতেছেন বাংলাদেশের মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। তিনি হারিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রিয়ান্থিকে। বাংলাদেশের প্রথম কোনো নারী অ্যাথলেট হিসেবে ব্যাক টু ব্যাক সোনা জেতার রেকর্ড গড়েছেন তিনি। পুরুষদের মধ্যে শ্যুটার সাইফুল বারী টানা তিন এসএ গেমসে সোনা জিতেছিলেন।

শনিবার পোখরার এস.আর.কে.সি. ব্যানকুয়েটে সোনা জয়ের লড়াইয়ে স্ন্যাচে মাবিয়া তিন লিফটে তোলেন ১০৫ কেজি। সেখানে প্রিয়ান্থি তোলেন ১০১ কেজি। এরপর ক্লিন অ্যান্ড জার্কে মাবিয়া তিন লিফটে তোলেন ১৮৫ কেজি। প্রিয়ান্থি তোলেন ১৮৪ কেজি। তাতে সোনা জয় নিশ্চিত হয়ে যায় মাবিয়ার। এই বিভাগে ব্রোঞ্জ জিতেছেন নেপালের তারা দেবী পুন।

এর আগে মাবিয়া ২০১৬ সালে ৬৩ কেজি ওজন শ্রেণিতে সোনা জিতেছিলেন। এবার তিনি ওজন শ্রেণি বদলে ৭৬ কেজিতে লড়াই করেছেন। যেখানে তাকে কঠিন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কার পিয়ন্থি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মাবিয়া তার প্রিয় ফরম্যাট ক্লিন অ্যান্ড জার্কে প্রিয়ন্থিকে হারিয়ে সোনা জিতে নেন।

পুরস্কার বিতরণী শেষে মাবিয়া বলেন, ‘আত্মবিশ্বাস ছিল। কোচ ও ফেডারেশন আমার প্রতি বিশ্বাস রেখেছে। নিজের প্রতি আমার যা বিশ্বাস ছিল, তার চেয়ে বেশি বিশ্বাস আমার প্রতি ছিল ফেডারেশন ও কোচদের। এই পদক আমি তাদের উৎসর্গ করছি।তাদের আশা পূরণ করতে পেরেছি, ভালো লাগছে। দেশের সবার প্রত্যাশা ছিল আমাকে নিয়ে। সেটা পূরণ করতে পেরেছি।’ 

‘ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ যদি আমাদের সুযোগ-সুবিধার ওপর জোর দেয়; তাহলে আমরা যেকোনো প্রতিযোগিতায় পদক এনে দিতে পারব। কারণ, আমি এসএ গেমসের ক্যাম্প করেছি চার-পাঁচ মাস। তাতেই স্বর্ণ জিততে পেরেছি। যদি দুই বছর ক্যাম্প করার সুযোগ পাই; তাহলে যেকোনো প্রতিযোগিতাতেই আমরা পদক এনে দিতে পারব। আমার পরবর্তী টার্গেট অলিম্পিক’- যোগ করেন মাবিয়া।

বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা বলেছেন, ‘মাবিয়ার প্রতি আমাদের বিশ্বাস ছিল। সে প্রত্যাশা মিটিয়েছে। আমরা খুবই খুশি। তার উত্তোরোত্তর আরো সাফল্য কামনা করছি।’

এবারের এসএ গেমসে এখন পর্যন্ত এটি বাংলাদেশের পঞ্চম সোনার পদক।


 

পোখরা/আমিনুল/পরাগ