ঢাকা, বুধবার, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

খালেদা জিয়ার ১১ মামলার শুনানি পিছিয়েছে

মামুন খান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৫ ৩:১৬:০৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-০৫ ৩:১৬:০৫ পিএম
খালেদা জিয়ার ১১ মামলার শুনানি পিছিয়েছে
Walton E-plaza

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা হত্যা ও রাষ্ট্রদ্রোহসহ ১১ মামলার শুনানির তারিখ পিছিয়েছে।

মামলাগুলোর মধ্যে রাজধানীর দারুস সালাম থানার নাশকতার আট মামলার শুনানির পরবর্তী তারিখ ১২ মার্চ এবং রাষ্ট্রদ্রোহের একটি ও যাত্রাবাড়ী থানার দুই মামলার পরবর্তী তারিখ ১০ এপ্রিল ধার্য করেছেন আদালত।

সোমবার পুরান ঢাকার বকশিবাজারস্থ কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা আসামিপক্ষের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে এদিন ঠিক করেন।

১১ মামলার মধ্যে যাত্রাবাড়ী থানার একটি হত্যা মামলা অভিযোগপত্র গ্রহণের বিষয়ে শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। অপর ১০ মামলা ছিলো অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানির জন্য। কিন্তু মামলাগুলোর মধ্যে খালেদা জিয়ার পক্ষে রাষ্ট্রদ্রোহসহ অধিকাংশ মামলা হাইকোর্ট স্থগিত করেছেন জানিয়ে শুনানি পেছানোর আবেদন করেন তার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার এবং সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবা। আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে পরবর্তী শুনানির এ তারিখ ঠিক করেন।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবা এসব তথ্য জানান।

উল্লেখ্য, এতদিন মামলাগুলো ঢাকা পুরান ঢাকার নিম্ন আদালতে বিচারাধীন ছিল। গত ৮ জানুয়ারি আইন মন্ত্রণালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপনে এই ১১ মামলাসহ খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা ১৪টি মামলার কার্যক্রম বকশীবাজারের ওই আদালতে চলবে।

প্রসঙ্গত, মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে করার অভিযোগে গত বছর ২৫ জানুয়ারি আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাটি দায়ের করা হয়। ২০১৫ সালের ২১ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক আলোচনা তিনি মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে করেন।

এদিকে যাত্রাবাড়ী থানার মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় গ্লোরি পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসে পেট্রল বোমা হামলা হয়। এতে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ হন। পরে তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নূর আলম (৬০) নামের এক যাত্রী।

এ ঘটনায় ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা করেন থানার উপপরিদর্শক এসআই কে এম নুরুজ্জামান। ওই বছরের ৬ মে খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক বশির আহমেদ।

অন্যদিকে, ২০১৫ সালে দারুস সালাম থানা এলাকায় নাশকতার অভিযোগে আটটি মামলা দায়ের করা হয়। এই আট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আসামি করা হয়।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/মামুন খান/ইভা

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       
Marcel Fridge