ঢাকা, বুধবার, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ইয়াবা ব্যবসায়ীদের ৫ দিনের মধ্যে আত্মসমর্পণের আহ্বান বদির

সুজাউদ্দিন রুবেল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-১২ ১:৪৪:১৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-১২ ৬:১৫:২০ পিএম
ইয়াবা ব্যবসায়ীদের ৫ দিনের মধ্যে আত্মসমর্পণের আহ্বান বদির
Walton E-plaza

কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজার-৪ আসনের বহুল আলোচিত প্রাক্তন সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি ইয়াবা ব্যবসায়ীদের পাঁচ দিনের মধ্যে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানিয়েছেন। অন্যথায় ভয়াবহ পরিণতি হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তিনি।

শুক্রবার বিকেলে টেকনাফের চৌধুরীপাড়ায় ‘এমপি বদি কটেজ’ এ কক্সবাজার-৪ সংসদীয় আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার চৌধুরীর সাথে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় প্রাক্তন এমপি বদি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আলোচিত প্রাক্তন এ সংসদ সদস্য বলেন, ‘তোমরা যারা যারা ঘর-বাড়ি ও দেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছ তারা দ্রুত যোগাযোগ করো। সরকারের কাছে তোমাদেরকে আমি আত্মসমপর্ণ করার সুযোগ করে দেব। নিজের জীবনটা বাঁচাও। মা ও বাবার চোখের পানি বন্ধ করাও। এতদিন ধরে যা করেছ, এখন সব বাদ দিয়ে সবাই মিলে তওবা করো। টেকনাফবাসীকে প্রমাণ করতে হবে আমরা ইয়াবামুক্ত হয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘এখন যতগুলো মানুষ টেনশন কিংবা কষ্টে আছে, সবার অভিশাপ কিন্তু ইয়াবা ব্যবসায়ীদের ওপর পড়বে। ইয়াবামুক্ত টেকনাফ গড়তে চাই। নির্বাচনের আগেও বলেছি তোমরা ইয়াবা ব্যবসায়ীরা আমাদের ভোট দিও না এবং কথাও বলবে না। কিন্তু এখন আমার স্ত্রী (শাহীন আক্তার) এমপি হয়েছে। এখন এমপি হিসেবে দায়িত্ব চলে এসেছে। ছেলেকে ধরে মারছে, মা-স্ত্রী, সন্তানরা কান্না করছে। কী লাভ হয়েছে? এলাকাবাসী সবার বদনাম হচ্ছে। আমি অনুরোধ করছি, পাঁচ দিনের সময় দিলাম। এই পাঁচ দিনের মধ্যে যারা যারা ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িত তালিকাভুক্ত কিংবা তালিকার বাইরে তোমরা সবাই আত্মসমপর্ণ করার জন্য আমার সাথে যোগাযোগ করো। আমি সবাইকে আত্মসমপর্ণ করিয়ে দেব। কারণ বাবা-মা, স্ত্রী-সন্তানদের কান্না বন্ধ করাতে হবে। আর তোমরা যদি আত্মসমপর্ণ না করো, তাহলে পরে আমাকে বলতে পারবে না।’

অনুষ্ঠানে এমপি শাহিন আকতার বলেন, ‘উখিয়া-টেকনাফে যারা ইয়াবা ব্যবসায় জড়িত তাদের কোনো রেহাই নেই। হয় ভালো হতে হবে, না হয় দেশ ত্যাগ করে চলে যেতে হবে। তাদের স্থান উখিয়া-টেকনাফের মাটিতে হবে না। কোনো ইয়াবা ব্যবসায়ী এলাকায় থাকতে পারবে না।’

তিনি ইয়াবাসহ সকল প্রকার মাদকের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আহমদ, ভাইস চেয়াম্যান মো. রফিক উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের দূর্যোগ ও ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক মো. ইউনুছ বাঙ্গালী, জেলা যুবলীগের প্রাক্তন সহসভাপতি আবুল কালাম, শাহ পরীর দ্বীপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সোনা আলী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সরওয়ার আলম, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কোহিনুর আকতার প্রমূখ। সভা পরিচালনা করেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলম বাহাদুর।




রাইজিংবিডি/কক্সবাজার/১২ জানুয়ারি ২০১৯/সুজাউদ্দিন রুবেল/সাইফুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       
Marcel Fridge