ঢাকা, রবিবার, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৭ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

সুরমায় মিলল ২ কেজি ওজনের ইলিশ!

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-২০ ১১:৪৫:৪১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-২১ ৮:৫২:১৪ এএম

হেমন্তের আগমনের পর থেকেই নেই বৃষ্টি। উজানেও নেই বর্ষণ। এ কারণে বর্ষায় প্রমত্তা হয়ে ওঠা সুরমার পানি কমছে দ্রুত গতিতে। জাগতে শুরু করেছে চর। এ নদীতে পানি কমার সাথে সাথে মাছ ধরতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন জেলেরাও।

রোববার বিকেলে সুরমা নদীর লামাকাজী অংশে জাল ফেলে মাছ ধরছিলেন একদল জেলে। চর জাগায় নদীর আকার হয়ে গেছে ছোট। যে কারণে এপার থেকে ওপার পর্যন্ত ‘ফাসজাল’ ফেলেছেন তারা। চরে দাঁড়িয়ে জাল টেনে তীরে তুলছিলেন কয়েকজন। আর নদীতে নৌকায় করে আরও কয়েকজন জাল টেনে নিয়ে আসছিলেন এপারে।

জাল তুলতেই বড় আকারের মাছের লাফ দেখে জেলেদের মুখে হাসির ঝিলিক। ভেবেছিলেন বড় আকৃতির রুই-কাতলা জালে ধরা পড়েছে; তাই লাফাচ্ছে। কিন্তু পরক্ষণে তাদের ভুল ভাঙলো। এ যে বড় আকৃতির রুপালী ইলিশ। একটি নয়; বরং ছোট-বড় মিলিয়ে ছয়-সাতটি ইলিশ উঠেছে জালে। আর পড়ন্ত বিকেলের রোদে ঝলমল করছে ঝিলিক ছড়াচ্ছে রুপালী ইলিশ।

এর আগে সিলেটের চেঙ্গেরখাল নদে ইলিশ ধরা পড়েছিল। এছাড়া গত বর্ষা মৌসুমে হাকালুকি হাওরে জেলেদের জালে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরাও পড়েছিল। এছাড়া সুরমা নদীতেও মাঝে মধ্যে ইলিশ জালে উঠে। তবে প্রায় সোয়া দুই কেজি ওজনের ইলিশ এবার প্রথম ধরা পড়লো বলে জানিয়েছেন জেলে আব্দুল হামিদ।

তিনি বললেন, হাকালুকি হাওর ও সুরমা নদীতে তিন-চার বছর ধরে ইলিশ ধরা পড়ছে। এর আগে সুরমায় ধরা পড়া ইলিশের আকৃতি ছোট ছিল। তবে আজকে ধরা পড়া ইলিশটির ওজন প্রায় সোয়া দুই কেজির মতো বলেও জানান তিনি।

মৎস্য বিশেষজ্ঞরা জানান, 'সিলেট অঞ্চলে নদনদী, হাওরে ইলিশ ধরা পড়ার বিষয়টি নিয়ে আশ্চর্য হওয়ার কারণ নেই। আর এখানে যেসব ইলিশ পাওয়া যায় এগুলো নোনা পানির নয়; স্থানীয় প্রজাতির ইলিশ। দেশের বিভিন্ন নদ-নদীর মধ্যে যে লিংকআপ (যোগসূত্র) রয়েছে, তাতে করে সুরমায় ইলিশ আসতেই পারে।’

সিলেট সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা দ্বিজরাজ বর্মণ বলেন, বর্ষায় মিঠাপানির মধ্যে হাকালুকি হাওরে বেশি ইলিশ মেলে। এছাড়া সুরমা, কুশিয়ারাসহ বিভিন্ন নদ-নদীতেও ইলিশ পাওয়ার তথ্য রয়েছে। ইলিশের বংশবৃদ্ধি হওয়ায় বিভিন্ন নদ-নদী পর্যন্ত পৌঁছাতে পেরেছে বলেও মত তার।
 

সিলেট/আব্দুল্লাহ আল নোমান/নাসিম