ঢাকা, বুধবার, ২৮ কার্তিক ১৪২৬, ১৩ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

মোংলা বন্দরের কার্যক্রম বন্ধ

জেলা সংবাদদাতা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৮ ৯:৪১:৫৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-০৮ ৯:৪১:৫৫ পিএম

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে মোংলা সমুদ্র বন্দরকে ৭ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ৭ নম্বর সতর্ক সংকেত জারির পরে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বন্দরের স্বাভাবিক কাজ বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছে। ফলে বন্দরের সব জাহাজের মালামাল লোড-আনলোড বন্ধ রয়েছে।

৭ নম্বর সতকর্তা সংকেত জারি করার পর রাতে জরুরি সভা করেছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ। বুলবুলের বিষয়ে তথ্য জানাতে বন্দরের পক্ষ থেকে তিনটি কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার শেখ ফকরউদ্দিন বলেন, ‘‘বন্দরের নিজস্ব সতর্ক সংকেত রয়েছে। আমাদের সতর্ক সংকেতের সর্বোচ্চ মাত্রা ৪। আবহাওয়া অধিদপ্তরের ৭ নম্বর সতর্ক সংকেত জারির পরে আমরা বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত জারি করেছি। আবহাওয়া অধিদপ্তরের সতর্ক সংকেত ৮ এ পৌঁছালে বন্দরে সর্বোচ্চ সতর্কতা ৪ জারি করা হবে।’’

তিনি বলেন, বন্দরে মালবাহী কোস্টার জাহাজগুলোকে বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের সহায়তায় খুলনার দিকে নিরাপদ স্থানে যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অন্যান্য জাহাজকে নিরাপদে থাকার জন্য বলা হয়েছে।

তিনি বলেন, সব জাহাজের মালামাল লোড-আনলোড বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আবহাওয়ার উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত এসব আদেশ জারি থাকবে।

বন্দরে এই মুহূর্তে মেশিনারি, ক্লিংকার, সার, জিপসাম, পাথর, সিরামিক ও কয়লা বোঝাই দেশি-বিদেশি ১৪টি বাণিজ্যিক জাহাজ অবস্থান করছে।

সুন্দরবনে পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পাশাপাশি বনে ভ্রমণে থাকা পর্যটকদের ফিনিয়ে আনার কাজ শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে সুন্দরবনে দুবলারচরে শুঁটকি পল্লিতে অবস্থারত ১৫ হাজার জেলেকে ফিরিয়ে আনতে কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনী সমন্বয় করে কাজ করছে।

সুন্দরবন বিভাগের সকল কর্মকর্তা ও বনরক্ষীদের নিরাপদে থেকে বন্য প্রাণী রক্ষায় কাজ করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান।


বাগেরহাট/আলী আকবার টুটুল/বকুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন