ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৪ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘বাসা থেকে ধরে নিয়ে’ সাংবাদিক আরিফুলকে মাদক মামলায় কারাদণ্ড

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-১৪ ৫:০০:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-১৪ ৭:২৫:১৮ পিএম

কুড়িগ্রামে শুক্রবার দিবাগত রাতে বাসা থেকে ধরে নিয়ে সংবাদিক আরিফুল ইসলামকে মাদক মামলায় এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আরিফুল ইসলাম অনলাইন নিউজপোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত।

আরিফুল ইসলামের পরিবারের সদস্যরা জানান, রাত ১২টার দিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিন্টু বিকাশ চাকমার নেতৃত্বে কয়েকজন আনসার সদস্য শহরের চড়ুয়াপাড়ার বাসা থেকে আরিফুলকে ধরে নিয়ে যান। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নিয়ে তার বাসা থেকে আধা বোতল মদ ও দেড়শত গ্রাম গাঁজা উদ্ধারের দায়ে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আরিফুল ইসলামের স্ত্রী মোস্তারিমা সরদার মিতু বলেন, ‘‘রাত ১২টার দিকে ঘরের দরজা ধাক্কাধাক্কি শুরু করেন। এক পর্যায়ে তারা জোর করে ঘরে ঢুকে আরিফুল ইসলামকে তুলে নিয়ে যান।’’

কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি মাহফুজুর রহমান বলেন, তারা জানতে পেরেছেন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের লোকজন আরিফুল ইসলামকে নিয়ে এসে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছেন।

সম্প্রতি আরিফুল ইসলাম তার ফেসবুক পেজে ‘মুজিববর্ষের প্রাক্কালে কুড়িগ্রামে নিয়োগ বাণিজ্যের জনশ্রুতি চলছে! ঘটনা কি সত্যি?’- এমন একটি পোস্ট দেন। সেই পোস্টে চাকরিপ্রার্থী ও সুধীমহল বিভিন্ন মতামত দেন।

কিছু দিন আগে জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন একটি পুকুর সংস্কার করে নিজের নামে নামকরণ করতে চেয়েছিলেন। আরিফুল ইসলামের এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন বাংলাট্রিবিউনে প্রকাশ হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিন্টু বিকাশ চাকমা ও জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও কেউ ফোন রিসিভ করেননি।

কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহফুজুর রহমান জানান, আরিফুল ইসলামের নামে মাদক সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ থানায় নেই।

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কুড়িগ্রাম জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দুলাল বোস বলেন, ‘‘আমার জানামতে আরিফুল মাদক দূরের কথা; কোনো দিন সিগারেটও স্পর্শ করেননি। বরং যারা ধূমপান করেন, তাদের বিরত রাখার চেষ্টা করেছেন।’’


বাদশা সৈকত/বকুল