ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ চৈত্র ১৪২৬, ৩১ মার্চ ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

দু'চোখে অন্ধকার দেখছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল

মামুন চৌধুরী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-২৬ ৩:২৩:৫১ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-২৬ ৩:২৩:৫১ পিএম

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে হবিগঞ্জের আলোচিত ট্রেজারি লুটে জড়িত মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসমাইল এখন অর্থাভাবে নিজের চিকিৎসা করাতে পারছেন না।

শেষজীবনে এসে পরিবার পরিজন নিয়েও দু'চোখে অন্ধকার দেখছেন তিনি।

মো. ইসমাইল হবিগঞ্জ জেলা শহরের সুলতান মাহমুদপুরের বাসিন্দা।  জাতির জনকের ডাকে সাড়া দিয়ে তিনি ২৬ মার্চ যুদ্ধে যান। প্রথম দিনেই বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডেন্ট মানিক চৌধুরীর নেতৃত্বে ট্রেজারি লুট করেন। সেখান থেকে অস্ত্র নিয়ে শেরপুর ও সাদীপুর যুদ্ধে অংশ নেন। এরপর সিলেটে যান। সেখান থেকে ভারতের বাঘাইক্যাম্পে গিয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি নেন। পরে রেমা, নালুয়া যুদ্ধে পাকসেনাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অংশ নেন।

অন্যদিকে ৩ নম্বর সেক্টর প্রধান মেজর কেএম শফি উল্লাহর নেতৃত্বে কমান্ডার মান্নানের নির্দেশনায়ও এ বীর যোদ্ধা জীবন বাজি রেখে লড়াই করেন। এ যুদ্ধ চলাকালে বালুমারায় তার কমান্ডার মান্নান মারা যান। যুদ্ধ করতে করতে পাক সেনারা পরাজিত হলে তিনিসহ তার সঙ্গীরা বিজয় নিয়ে ৬ ডিসেম্বর হবিগঞ্জে ফিরেন।

ফিরে চাকরি নেন গণপূর্ত বিভাগে। মাস্টার রোলে চাকরি নিয়ে ১৯৮৬ সাল  থেকে কার্যভিত্তিক প্লাম্বার পদে প্রায় ৩০ বছর দায়িত্ব পালন শেষে ২০১৭ সালে অবসরে যান। চাকরি স্থায়ী না হওয়ায় তিনি পেনশন পাননি। খালি হাতে বাড়ি ফিরে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের চিন্তায় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।সুচিকিৎসা না করাতে পারায় তার খাদ্যনালিতে বিরাট সমস্যা দেখা দিয়েছে।

অসুস্থ ইসমাইলের সাথে আলাপ হলে তিনি জানান, ভিটেমাটি হারানো মো. ইসমাইল বর্তমানে শহরের শায়েস্তানগর এলাকায় অল্প টাকায় ঘর ভাড়া করে পরিবার নিয়ে বসবাস করছেন। তার দুই পুত্র সন্তান থাকলেও তারা তেমন একটা রোজগার করতে পারেনা। এদিকে মুক্তিযোদ্ধা ভাতায় তিনি ঘর ভাড়া, সংসার চালিয়ে চিকিৎসা করাতে পারছেন না। অথচ এ মুহূর্তে তার সুচিকিৎসা খুবই জরুরী। এ জন্য তিনি সরকারের কাছে আর্থিক সহযোগীতা কামনা করেন।

এই বীর মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী জানান, তার স্বামী সৎভাবে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। এজন্য কিছুই করতে পারেননি। ৩০ বছর চাকরি করেও পেনশন পাননি। এ কারণে জমানো টাকা নেই।  টাকা ছাড়া অপারেশন সম্ভব হচ্ছে না। স্বামীর সুচিকিৎসার জন্য তিনিও প্রধানমন্ত্রীসহ দেশবাসীর কাছে আর্থিক সহায়তা কামনা করেন।



হবিগঞ্জ/টিপু

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : হবিগঞ্জ, সিলেট বিভাগ