ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০২ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

গাড়ির অভাবে বাড়ি যেতে পারছেন না পরিবহন শ্রমিকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-৩১ ১২:১৮:০৪ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-৩১ ১:১০:১৩ এএম

করোনা মোকাবিলায় দেশে সব ধরনের যানবহন চলাচল বন্ধ থাকায় যশোরে টারমিনালগুলোয় আটকে পড়েছে সারাদেশের প্রায় দুইশ পরিবহন শ্রমিক।টাকা আর গাড়ির অভাবে তারা যেতে পারছেন না নিজেদের বাড়িতে। অনাহারে দিন কাটছে তাদের।

যশোরের কেন্দ্রীয় টারমিনাল থেকে ঢাকা, বেনাপোল, খাজুরা, ছুটিপুর, মাগুরা, নড়াইলসহ প্রায় ১৮ টি রুটে ছয়শ থেকে থেকে সাতশ গাড়ি চলাচল করে। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে ২৪শ শ্রমিক ও তাদের পরিবার। সম্প্রতি সারা দেশে গাড়ি চলাচল বন্ধের ঘোষণায় এদের মধ্যে অনেকেই আটকে পড়েছে টারমিনালে।

শ্রমিকরা বলছে, ‘করোনাভাইরাস রোধে ঘরে থাকতে বলেছে, যাতে মানুষের মাঝে ভাইরাস না ছড়ায়। কিন্তু আমরা দিন আনি দিন খাই, পরিবারের একজনের আয়েই সংসার চলে। সে পথও বন্ধ হওয়ার পর অনেক শ্রমিক বাড়ির বাজারের খরচ দিতে পারছে না, অনেক শ্রমিক বাড়ি ফিরতেও পারছে না।

যশোর পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সেলিম রেজা মিঠু জানান, ‘এই করোনাভাইরাসের জন্য সারা দেশে গাড়ি বন্ধ আছে। কিন্তু আমরা পরিবহন শ্রমিক, আমাদের প্রতিদিন ডিউটিতে গেলে বেতন হয়। বিভিন্ন জাগায় সরকারিভাবে যে সাহায্য দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু আমরা সে সাহায্য পাচ্ছিনা। এখানে অনেক শ্রমিক আছে, যারা তাদের বাড়ি ফিরতে পারেনি। ’

এ ব্যাপারে যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ বলেন, ‘সবার কাছে সাহায্য এখনও পৌঁছায়নি। তবে আমরা যেখানেই অভিযোগ পাচ্ছি, সেখানে যেন সাহায্য পৌঁছায়, আমরা সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নিচ্ছি। পরিবহন শ্রমিক আটকা পরে থাকলে, আমরা মালিকপক্ষকে অনুরোধ করবো খেয়াল রাখার জন্য। আমাদের পক্ষ থেকেও দ্রুত ব্যবস্থা নিব।’

যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছে দিতে দিনরাত গাড়ি নিয়ে ছুটে পরিবহন শ্রমিকরা। কিন্তু দেশে ভয়াবহ ভাইরাসে নিজেদের গন্তব্যেই যেতে পারছে না এই শ্রমিকরা।

ঘরে থাকলে আয় নাই, বাইরে বের হলে যানবহন নাই। অসহায় অনাহারে দিন কাটছে নিন্ম আয়ের এই মানুষদের। তাই সরকারের আশু সুদৃষ্টি কামনা করেছেন তারা।


যশোর/সাকিরুল কবীর রিটন/সাজেদ

       
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : যশোর, খুলনা বিভাগ