ঢাকা, রবিবার, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৭ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিদায়বেলা

অনিক রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৫ ৭:১৫:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-০৫ ৭:১৭:১৬ পিএম

‘আমার যাবার সময় হল-দাও বিদায়, মোছ আঁখি দুয়ার খোল, দাও বিদায়’

ঠিক এমন চরণই সেদিন মনে আসছিলো জবি শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে। হ্যাঁ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৮ম ব্যাচের সাইনিং আউট ডে।

৪ তারিখ, সোমবার সকাল।ক্যাম্পাসের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে সাজ সাজ রব। চলছে বর্ণিল পোশাক পরিহিত শিক্ষার্থীদের আনাগোনা। একদিকে যেমন তাদের আনন্দ, শেষবারের মতো তারা যেন তাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে কাছে পাচ্ছেন। অন্যদিকে তাদের মন ভারাক্রান্ত। তারা জানেন না, আর কখনও বিশ্ববিদ্যালয়কে এভাবে পাবেন কি না।

সাদা টি-শার্টে মার্কার দিয়ে লিখে দিচ্ছেন একে অপরের উদ্দেশ্যে অমীয় বাণী। যা তারা সংরক্ষণ করবে সারা জীবন।

অনেকে মঞ্চে এসে স্মৃতিচারণ করলেন তাদের এই চার বছরের অভিজ্ঞতা। এত সুমধুর, অমলিন স্মৃতি বলতে গিয়ে নিজের অজান্তেই হৃদয়ে বেজে উঠেছে বেদনার সুর। বিভাগের শিক্ষক, কর্মচারী এবং বিভাগের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাই যেন তাদের পরমাত্মীয়। নিজ পরিবারের মতই এই চারটি বছর তারা বিভাগে কাটিয়েছেন।

বর্ণিল এই উৎসবকে আরও রঙিন কর‍তে আয়োজন করা হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের, যেখানে অংশ নেন বিভাগের অনেক শিক্ষার্থীরা। আনন্দ, ঠাট্টা, মজা, আবেগে আত্মহারা হয়ে ওঠেন সবাই।

কেউ নাচছে, কেউবা গান গাইছে, কেউ করছে কবিতা আবৃত্তি। সব মিলিয়ে মনেই হয়নি এটি তাদের বিদায়ক্ষণ। বরং এটি যেন তাদের মিলনমেলা। শেষ একটি বারের মতো তারা মেতে উঠেছেন আনন্দে।

তাদের এই আনন্দের অংশ হয়েছিল বিভাগের শিক্ষকগণ। তাদের উদ্দেশ্যে আশীর্বাদস্বরূপ অনেক কিছু বলেন তারা।

দিনব্যাপী চলা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে মনেই হয়নি কখন সন্ধ্যা নেমে এল। এবার যে, তাদের যেতে হবে। যেতে হবে প্রাণপ্রিয় ক্যাম্পাস, প্রাণপ্রিয় বিভাগ এবং সহপাঠিদের ছেড়ে। কিন্তু নিয়তি, ছেড়ে যেতে হবে। একে একে সবাই চলে গেলেন। আবার নতুনদের নিয়ে ব্যস্ত প্রিয় ক্যাম্পাস... 

লেখক: শিক্ষার্থী, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।


জবি/অনিক রহমান/হাকিম মাহি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন