ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ চৈত্র ১৪২৬, ০৯ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

করোনা রোধে ৪ তরুণের ভিন্ন উদ্যোগ

গোলাম মোর্শেদ সীমান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-২৬ ৫:৪৩:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-২৬ ৫:৪৩:১০ পিএম

কাশফুল ফ্যাক্টরি এবং বুক ফর ওয়ার্ল্ড যৌথভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যে ভালো কাজ করা সম্ভব, তা প্রমাণ করেছেন চার তরুণ।

রাফিদ আরিয়ান, জুবায়ের ইবনে কামাল, হাসান ইনাম এবং আলিফ আল সিয়াম চার বন্ধু। দু’জন পড়াশোনা করছে বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং দু’জন উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

দেশের নানা পরিস্থিতিতে তরুণরা এগিয়ে এসেছে বারবার, এবারো ব্যতিক্রম হয়নি৷ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন অসংখ্য তরুণ। ২২ মার্চ রাতে এক স্টাটাস দেন তারা। বিভিন্ন জায়গায় জীবাণুনাশক ছিটাবেন। যেহেতু তাদের দলে সবাই ছিলেন শিক্ষার্থী, সেজন্য অনেকের সাহায্য প্রয়োজন। এজন্য তারা সোশ্যাল মিডিয়াকে বেছে নেন হাতিয়ার হিসেবে।

কথায় আছে ভালো কাজে উৎসাহ এবং অংশগ্রহণ পাওয়া যায় সবার, তার প্রমাণ মিলেছে আরো একবার। তাদের লক্ষ্যের দ্বিগুণ টাকা চলে আসে ১২ ঘণ্টার মধ্যে। প্রথমে যারা টাকা দিচ্ছেন, তাদের জন্য ৩০০ টাকার বই উপহার দেওয়া হবে বুক ফর ওয়ার্ল্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়। তবে আনন্দের খবর হচ্ছে, যারা সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন, তারা সবাই বই নিতে চাননি। দুই বন্ধু জুবায়ের আর ইনাম ঘরে বসে সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রচারণা এবং টাকা কালেকশন করেন এবং দুই বন্ধু আরিয়ান আর সিয়াম মাঠ পর্যায়ে কাজ করেন৷

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) ঢাকা দক্ষিণের গুরুত্বপূর্ণ কিছু অঞ্চলে তারা এই জীবাণুনাশক ছিটান৷ প্রায় ১৬০ লিটার জীবাণুনাশক ছিটান তারা শান্তিবাগ, শান্তিনগর, মালিবাগ, খিলগাঁও, রামপুরাসহ গুরুত্বপূর্ণ কিছু অঞ্চলে।

বুধবার (২৫ মার্চ) সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মোট ৩২৪ লিটার জীবাণুনাশক ছিটেয়েছে তারা ঢাকার সিদ্ধেশ্বরী, মগবাজার, ইস্কাটন, বাংলামটর, কাঁঠালবাগান, হাতিরপুল, সায়েন্স ল্যাবরেটরি, কাটাবন, নীলক্ষেত, শাহবাগ, পরীবাগ, সেগুনবাগিচা, পল্টন, রাজারবাগ ও শান্তিনগরসহ আশেপাশের এলাকায়।

উদ্যোগ সম্পর্কে কাশফুল ফ্যাক্টরির প্রতিষ্ঠাতা রাফিদ আরিয়ান বলেন, ‘আমরাও পারতাম ঘরে বসে বসে সরকার আর জনগণের ভুল ধরে যেতে। কিন্তু আসুন এসব বাদ দিয়ে নিজে মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসি। আমরা তিনজন মিলে এই কাজ সম্পূর্ণ করেছি। আমাদের লক্ষ্যমাত্রা ৫০০ লিটার জীবাণুনাশক ছিটাবো ঢাকার গুরত্বপূর্ণ অঞ্চলে। বিশেষ করে হাসপাতালগুলোর সামনে। আমরা বিশ্বাস করি সবাই মিলে চেষ্টা করলে করোনাকে মোকাবিলা করা সম্ভব।’


কবি নজরুল কলেজ/হাকিম মাহি