ঢাকা, সোমবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিশ্বকাপ এড়িয়ে চলছেন হ্যাজেলউড

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-১১ ১১:৩৭:২৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-১১ ১১:৫৩:৪০ পিএম
বিশ্বকাপ এড়িয়ে চলছেন হ্যাজেলউড

ক্রীড়া ডেস্ক : ২০১৫ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার শিরোপাজয়ী দলের সদস্য ছিলেন। জশ হ্যাজেলউড স্বপ্ন দেখছিলেন এবারের বিশ্বকাপে খেলারও। কিন্তু চোটের কারণে বিশ্বকাপ দলেই সুযোগ পাননি। এতে এতটাই হতাশ হয়েছেন যে, টিভিতেও বিশ্বকাপ না দেখার চেষ্টা করছেন অস্ট্রেলিয়ান পেসার।

২৮ বছর বয়সি এই পেসার গত জানুয়ারিতে পিঠের চোটে পড়েছিলেন। জানুয়ারিতে ভারতের বিপক্ষে সিডনি টেস্টের পর কোনো ধরনের ক্রিকেটে আর খেলা হয়নি তার। তাকে বাইরে রেখেই ঘোষণা করা হয় বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়ার ১৫ সদস্যের প্রাথমিক দল। তবে চূড়ান্ত দলে জায়গা পাওয়ার আশায় ছিলেন। ফিরতে চেয়েছিলেন বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে।কিন্তু ঝাই রিচার্ডসনের চোটের পর যখন একজন বদলি খেলোয়াড় দরকার হলো, এরপরও তাকে বিবেচনা করেননি নির্বাচকরা।

আগামী শুক্রবার অবশ্য বিশ্বকাপের দেশ ইংল্যান্ড যাচ্ছেন হ্যাজেলউড। তবে সেটা অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের হয়ে পাঁচটি একদিনের ও তিনটি চার দিনের ম্যাচ খেলার জন্য। যেখানে তিনি নিজেকে অ্যাশেজের জন্য প্রস্তুত করবেন। তবে থাকতে হবে তো বিশ্বকাপের কাছাকাছিই। বিশ্বকাপ দলে জায়গা না পাওয়ার হতাশাটা এখনো তাকে তাড়া করে ফেরে।

ইএসপিএন-ক্রিকইনফোকে হ্যাজেলউড বলেছেন, ‘সত্যি বলতে আমি খুব বেশি দেখছি না (বিশ্বকাপ)। আমি স্কোর দেখছি, তবে যতটা পারা যায় আমি বিশ্বকাপ থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করছি। এটা বেশ কঠিন। যখন ওখানে (ইংল্যান্ড) থাকব, এড়িয়ে চলা কঠিন হবে। তবে অস্ট্রেলিয়ায় খুব একটা খারাপ নয়। কারণ আমাদের এখানে গভীর রাতের আগে খেলা শুরু হয় না, ফলে আপনি এড়িয়ে চলতে পারবেন। কিন্তু যখন ইংল্যান্ডে থাকব, ব্যাপারটা অন্যরকম হবে।’

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৪৪ ওয়ানডেতে ৭২ উইকেট নেওয়া হ্যাজেলউড ১০-১২ সপ্তাহ আগে বোলিংয়ে ফিরেছেন। এবং ফুল রানআপে ফিরেছেন এক মাস আগে, যখন ব্রিসবেনে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ প্রস্তুতি চলছিল। তবুও কাঁধের চোটের কারণে ইংল্যান্ড উড়াল দেওয়ার আগে ঝাই রিচার্ডসন দল থেকে ছিটকে গেলে দলে নেওয়া হয় কেন রিচার্ডসনকে। হ্যাজেলউড মনে করেন, তিনি বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুত হতে পারতেন।

‘এখানে ভিন্ন কিছু মতামত ছিল। তবে আমি এমন অবস্থায় ছিলাম যে, শ্রীলঙ্কা অথবা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে পারতাম। সেটাই সব সময় লক্ষ্য ছিল, ওই ম্যাচের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করা। তবে হ্যাঁ, এটা বেশ কঠিন, খুব বেশি ক্রিকেট না খেলে বড় টুর্নামেন্টে যাওয়া। নির্বাচকরা ব্যাপারটা সেভাবেই দেখেছে। খেলার জন্য আমি সব সময় আত্মবিশ্বাসী ছিলাম, তবে আমার মনোযোগ এখন অ্যাশেজে।’

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জুন ২০১৯/পরাগ 

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন