ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

স্ত্রী ও ভাইয়ের পরকীয়ার বলি বাড্ডার মনু

আহমদ নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১৫ ২:৫৫:৪৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৯-১৫ ৪:৫৮:৪৯ পিএম
স্ত্রী ও ভাইয়ের পরকীয়ার বলি বাড্ডার মনু
Walton E-plaza

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্ত্রী কাজল রেখা (৩০) ও নিজের ছোট ভাই আজমল হক মিন্টুর মধ্যে অবৈধ সম্পর্কের জের ধরে খুন হয়েছেন রাজধানীর বাড্ডা এলাকার মনিরুজ্জামান মনির ওরফে মনু (৩৫)।

শনিবার পুলিশের গুলশান বিভাগের ডিসির অফিসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিসি মোস্তাক আহমেদ এ তথ্য জানান।

দেবর-ভাবীর পরকীয়ার পথে কাঁটা হওয়ায় মনুকে হত্যা করার জন্য দেবর ও ভাবী পরিকল্পনা করে তিনজনকে ভাড়া করেন। এই ভাড়াটে খুনিরা মনুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে।

ডিসি মোস্তাক আহমেদ জানান, এ ঘটনায় কাজল রেখা, মনুর ছোটভাই আজমল হক মিন্টু ও তিন ভাড়াটে খুনি আব্দুল মান্নান, সোহাগ ও ফাহিমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।  তাদের কাছ থেকে দুটি ছুরি ও মনুর ব্যবহৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

গত ৮ সেপ্টেম্বর শনিবার রাজধানীর বাড্ডা থানাধীন সাতারকুল এলাকায় রাস্তার পাশে ছুরিকাঘাত করা একটি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ঢামেকে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে গেলে মিন্টুই তার ভাই মনুর লাশ শনাক্ত করে।
 


ডিসি আরো বলেন, ‘জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, নিহতের স্ত্রী ও ছোট ভাইয়ের মধ্যে ৮-৯ বছর ধরে পরকিয়া ছিল। মনুকে সরানোর জন্য এই দুজন দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পনা করে আসছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘পরবর্তী সময়ে মনুকে হত্যা করার জন্য ১ লাখ টাকার বিনিময়ে তিনজনের সঙ্গে চুক্তি করে দেবর-ভাবী। খুনিদের অগ্রিম ৩০ হাজার টাকাও দেন তারা। এই তিনজনই মনুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে।

কেউ যাতে সন্দেহ করতে না পারে সে উদ্দেশ্যে দেবর ও ভাবী বাদী হয়ে বাড্ডা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ডিসি আরো বলেন, ‘মামলার তদন্তকালে বাড্ডা থানা পুলিশের সন্দেহের তালিকায় চলে আসেন দেবর ও ভাবী। এক পর্যায়ে কাজল রেখাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরবর্তী সময়ে কাজল রেখাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি এই খুনের পরিকল্পনার কথা স্বীকার করেন। তিনি এবং তার দেবর আজমল মিলে কীভাবে হত্যার পরিকল্পনা করেছেন তা জানান।

ইতোমধ্যে কাজল রেখার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি আদলতে রেকর্ড করা হয়েছে বলেও ডিসি মোস্তাক আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে জানান।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮/নূর/ইভা/শাহনেওয়াজ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       
Marcel Fridge