ঢাকা, সোমবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

মজুত বাড়াতে ৫০ হাজার টন গম আমদানির উদ্যোগ

কেএমএ হাসনাত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-২৩ ৯:৫৬:৪০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-২৪ ৫:০৩:০৫ পিএম
মজুত বাড়াতে ৫০ হাজার টন গম আমদানির উদ্যোগ
Walton E-plaza

কেএমএ হাসনাত : দেশের খাদ্য মজুত সুরক্ষিত করতে আন্তর্জাতিক কোটেশনের মাধ্যমে আরো ৫০ হাজার টন গম আমদানি করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাব সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে উপস্থাপন করা হবে।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে বুধবার দুপুরে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, প্রতি টন গমের দাম ২৬৭ দশমিক ৯৮ ডলার হিসেবে বাংলাদেশি টাকায় মোট ব্যয় হবে ১১২ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। ক্রয় কমিটির অনুমোদন পাওয়া গেলে সিঙ্গাপুর ভিত্তিক মেসার্স অ্যাগ্রোকরপ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিডেট নামের একটি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এই গম সরবরাহ করবে।

এর আগে খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে গম সরবরাহের জন্য ২টি বাংলা ও ২টি ইংরেজি সংবাদমাধ্যমে আগ্রহীদের কাছে থেকে আন্তর্জাতিক কোটেশন আহ্বান করা হয়। এতে মোট চারটি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে মেসার্স অ্যাগোকরপ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেড প্রতি টন গমের দাম ২৬৭ দশমিক ৯৮ ডলার, মেসার্স ফনিক্স গ্লোবাল ডিএমসিসি ২৭৪ দশমিক ৪৭ ডলার মেসার্স সুইস সিঙ্গাপুর ওভারসীস এন্টারপ্রাইজ ২৭৫ দশমিক ৯২ ডলার এবং মেসার্স অ্যাসনটন এফএফআই ২৭৭ ডলার দামে সরবরাহ করার আগ্রহ প্রকাশ করে।

সূত্র জানায়, খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক গঠিত বাজার দর বাছাই কমিটি কোটেশন সংশ্লিষ্ট প্রাক্কলিত দরের সিলকৃত প্রতিবেদন ‘দরপত্র উন্মুক্তকরণ কমিটির’ বৈঠকে উপস্থান করা হয়। কমিটি দরপত্রে বর্ণিত শর্তাবলী যাচাই-বাছাই করে। একই সঙ্গে গমের বিশ্ববাজার দর পর্যালোচনা করে সিঙ্গাপুর ভিত্তিক মেসার্স অ্যাগ্রোকরপ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেডের দরকে সর্বনিম্ন দর হিসেবে দরপত্র মূল্যায়ন কমিটিও ঘোষণা  দেয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মেসার্স অ্যাগ্রোকরপ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেডকে ৫০ হাজার টন গম সরবরাহ করার জন্য সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির কাছে সুপারিশ করেছে।

সূত্র জানায়, কমিটি দর প্রস্তাবে অনুমোদন দিলে খাদ্য অধিদপ্তর পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। খাদ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদন অনুযায়ী গত ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে মোট ১৩ লাখ ৮ হাজার টন খাদ্য মজুত রয়েছে। এর মধ্যে ১১ লাখ ৫৬ হাজার টন চাল এবং এক লাখ ৫২ হাজার টন গম মজুত আছে। এ অবস্থায় গমের মজুত বাড়াতে ৫০ হাজার টন গম আমদানি করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৩ এপ্রিল ২০১৯/হাসনাত/সাইফ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge