ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য অতিরিক্ত বরাদ্দ চায় বেজা

কেএমএ হাসনাত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-০৮ ৭:১৫:০২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-০৮ ৯:১০:০১ পিএম
অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য অতিরিক্ত বরাদ্দ চায় বেজা
Voice Control HD Smart LED

কেএমএ হাসনাত : মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য ভূমি অধিগ্রহণের বিপরীতে বরাদ্দকৃত অর্থের অতিরিক্ত আরো ৩৯২ কোটি ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ চেয়েছে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ। প্রকল্পটির জন্য বরাদ্দ রয়েছে ২০৭ কোটি ৯০ লাখ টাকা।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ পরিকল্পনা বিভাগ ও অর্থ বিভাগের সচিবের কাছে চিঠি দিয়ে এ বরাদ্দ চেয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আওতায় অনুমোদিত প্রকল্প বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরস্থ ‘মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ প্রকল্প’ এর বিপরীতে পুন:বরাদ্দ হিসেবে এ অর্থ চাওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলায় ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য অনুমোদিত প্রকল্পের আওতায় মিরসরাইয়ে ১০০০ একর ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সূত্র জানায়, পরিকল্পনা কমিশনের কার্যক্রম বিভাগ ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের এডিপিতে বরাদ্দের জন্য প্রথম ও দ্বিতীয় কলনোটিশে মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনে ভূমি অধিগ্রহণের জন্য ৮৪৫ কোটি ৮৩ লাখ টাকা বরাদ্দ প্রস্তাব করা হয়েছিল। কিন্তু বরাদ্দ রাখা হয় মাত্র ২০৭ কোটি ৯০ লাখ টাকা, যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম।

সূত্র জানায়, প্রকল্পটির আওতায় মূলত ভূমি অধিগ্রহণ করা হচ্ছে। স্থাবর সম্পত্তি অধিগ্রহণ ও হুকুমদখল আইন ২০১৭ এর ৮(৪) অনুযায়ী প্রত্যাশী সংস্থা বেজা কর্তৃক সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকের নোটিশ জারির ১২০ দিনের মধ্যে সম্পূর্ণ অর্থ পরিশোধ করতে হয়। একই আইনের আওতায় উপধারা ১৪ অনুযায়ী স্থাপবর সম্পত্তি অধিগ্রহণের জন্য প্রাক্কলিত অর্থ প্রত্যাশী ব্যক্তি বা সংস্থা কর্তৃক ১২০ দিনের মধ্যে জমা দেওয়া না হলে উক্ত মেয়াদ শেষে অধিগ্রহণের যাবতীয় কার্যক্রম বাতিল হবে।

উল্লেখ্য, ভূমি অধিগ্রহণের আওতায় নির্ধারিত ভূমি অধিগ্রহণের কেসভিত্তিক প্রাক্কলিত অর্থ আংশিক পরিশোধের কোনো সুযোগ নেই।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরস্থ মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য এলওসি-৩ এর আওতায় ‘মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন’ শীর্ষক অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পটি গত ৯ এপ্রিল একনেক কর্তৃক অনুমোদিত হয়। উক্ত অনুমোদিত প্রকল্পের বাস্তবায়ন কাজ শুরু করার জন্য ‘মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ২০২০ সালের মধ্যে ভূমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন করতে হবে।

এ অবস্থায় মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন সরকারের অগ্রাধিকার এবং বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ অঙ্গীকার বিবেচনায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের এডিপিতে প্রকল্পটির অনুকূলে বারদ্দকৃত ২০৭ কোটি ৯০ লাখ টাকার অতিরিক্ত আরো ৩৯২ কোটি ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/৮ জুলাই ২০১৯/হাসনাত/সাইফ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge