ঢাকা, রবিবার, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৭ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

২৪২৯৬ কোটি টাকায় পাঁচ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

বিশেষ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৬ ৪:৪৮:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-০৬ ৭:২৮:০৪ পিএম

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরকে আরো কার্যকর এবং সুপরিসর করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।  বিমানবন্দটির সম্প্রসারণে মোট ব্যয় হবে ২০ হাজার ৫৯৮ কোটি টাকা। বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে অ‌্যাভিয়েশন ঢাকা কনসোর্টিয়াম (এডিসি)।

এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাবসহ মোট ৫টি ক্রয় প্রস্তাব সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে।  যার মোট মূল্য ২৪ হাজার ২৯৬ কোটি ১৮ লাখ ৬৮৭ টাকা।

বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা  উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, জাপানের ওডিএ লোন এবং সরকারি অর্থায়নে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সম্প্রসারণের একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে।  এজন্য মোট ব্যয় হবে ২০ হাজার ৫৯৮ কোটি ৬৪ লাখ ৮৪ হাজার টাকা।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের গুরুত্ব বাড়ছে।  বিমান আসা যাওয়ার সংখ‌্যাও বৃদ্ধি হচ্ছে। বিমানবন্দরের বিদ্যমান  অবকাঠামো এবং আনুসঙ্গিক সুযোগ-সুবিধা দিয়ে এ চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।  যে কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বিমানবন্দর সম্প্রসারণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

বৈঠকে রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ৩ হাজার ৪৪৯ কোটি ৫ লাখ টাকার ফিজিক্যাল প্রটেকশন সিস্টেম (পিপিএস) প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে।  প্রকল্পটি গত মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক বৈঠকে অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠকে ২০১৯-২০১০ অর্থবছরে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির মাধ্যমে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে প্রথম লটে ২৫ হাজার টন বাল্ক গ্রানুলার ইউরিয়া সার আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়।  এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ দুই লাখ টন ইউরিয়া নিরবিচ্ছিন্নভাবে আমদানির লক্ষ্যে লটভিত্তিক মূল্য  ৫০ কোটি টাকার উর্ধ্বে গেলেও, আলাদা অনুমোদনের পরিবর্তে বিশেষ বিবেচনায় এ বছরের অন্যসব লটের অনুমোদনের ক্ষমতা শিল্পমন্ত্রীকে দেয়ার একটি প্রস্তাব অনুমোদন হয়।  প্রথম লটে ২৫ হাজার টন বাল্ক গ্রানুলার ইউরিয়া সারের প্রতি টনের দাম ২৬৫ দশমিক ২৫ ডলার।  সে হিসেবে বাংলাদেশি টাকায় মোট ব্যয় হবে ৫৪ কোটি ২৯ লাখ ২৯ হাজার টাকা।

বৈঠকে ‘চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি’ এর একটি সাব কম্পোনেন্টের অন্তর্ভুক্ত ‘সিস্টেমেটিক ইংলিশ টিচিং ফর প্রাইমারি টিচার্স’ এর আওতায় ট্রেনিং অব দি মাস্টার ট্রেইনার্স ইন ইংলিশ সেবা ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়।  এ প্রকল্পে ব্যয় হবে ৪৬ কাটি ৬৮ হাজার ৬৯ লাখ টাকা।

এছাড়া বৈঠকে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বের্ডের ‘খুলনা জেলার ভুতিয়ার বিল এবং বর্ণাল সলিমপুর কোলাবাসুখালি বন্য নিয়ন্ত্রণ, নিস্কাশন প্রকল্প (দ্বিতীয় পর্যায়)’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ ডিজেল প্ল্যান্ট (বিডিপি) লিমিটেড এর মাধ্যমে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে বাস্তবায়নাধীন আঠারোবাড়ী নদীর ৪৯ দশমিক ২৫০ কিলোমিটার ও ৮ ডেন্টের ১টি ড্রেনেজ রেগুলেটর নির্মাণকাজের ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে।  এতে ব্যয় হবে ১৪৭ কোটি ৫০ লাখ ১৮ হাজার টাকা।  


ঢাকা/হাসনাত/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন