ঢাকা, সোমবার, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, ০৬ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

২০৪১ টাকা ব্যয়ে ৭ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

বিশেষ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২৬ ৯:৪৭:২৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২৬ ৯:৪৭:২৬ পিএম

দেশের কৃষি খাতের চাহিদা মেটাতে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চার লাখ ৫০ হাজার টন ডিএপি সার আমদানির একটি প্রস্তাবসহ ২০৪১ কোটি ৭৭ লাখ ৭২ হাজার টাকা ব্যয়ে ৭টি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংকান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা কমিটির সম্মেলন কক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে কমিটির বৈঠকে এসব প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিবসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী অনুমোদিত ক্রয় প্রস্তাবের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে বংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) ও সৌদি আরবের মাদেন এর মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির আওতায় চার লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ডিএপি সার আমদানি করা হবে। প্রতি মেট্রিক টনের দাম ৩৪৭ দশমিক ৭৯ মার্কিন ডলার হিসেবে মোট খরচ হবে এক হাজার ৩২৯ কোটি ৫১ লাখ ৪২ হাজার ২২৫ টাকা।

তিনি বলেন, জরুরি চাহিদা পূরণের জন্য কিংবা পার্সেলের মাধ্যমে জি-টু-জি ভিত্তিতে ইন্দোনেশিয়া থেকে অনুমোদিত পরিমাণের অতিরিক্ত ১৫,২৭৮ দশমিক ৫৯০ মেট্রিক টন জেট এ-২ ও ১৪,৪০১ দশমিক ৬৪২ মেট্রিক টন ডিজেল আমদানির একটি ক্রয় প্রস্তাবের কার্যোত্তর অনুমোদনের জন্য বৈঠকে উপস্থাপন করা হয়েছিল। কমিটি তাতে অনুমোদন দিয়েছে। এতে ব্যয় হয়েছিল ১৫৯ কোটি ১২ লাখ টাকা।

বৈঠকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ‘আরবান ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইমপ্রুভমেন্ট প্রিপারেটরি ফ্যাসিলিটি ফর নারায়ণঞ্জ সিটি করপোরেশন প্রকল্পে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সেবা ক্রয়ে ব্যয় হবে ৫০ কোটি ৯৩ লাখ ৮০ হাজার ৩৩০ টাকা। কয়েকটি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে এ সেবা দেবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, বৈঠকে ‘যাত্রবাড়ী   (মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার)-ডেমরা (সুলতানা কামাল সেতু) মহাসড়ক ৪-লেনে উন্নীতকরণ’ শীর্ষক প্রকল্পের প্যাকেজ নম্বর পিডব্লিউ ০১ এর পূর্ত কাজের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এ প্রকল্পে ব্যয় হবে ৩৩২ কোটি ১২ লাখ ৬৩ হাজার ২১৬ টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে তমা কন্সট্রাকশন অ্যান্ড কোম্পানি লিমিটেড।

তিনি বলেন, ই-জিপির মাধ্যমে এখন সরকারের সব ধরনের টেন্ডার সম্পন্ন হচ্ছে। এতে নানা ধরনের সমস্যার অবসান হয়েছে। সরকারের ক্রয় কাজ আরো স্বচ্ছ করতে এর আওতা আরো বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এজন্য ই-জিপি রিলেটেড ট্রেনিং কার্যক্রম বাস্তবায়নে পরামর্শক সেবা ক্রয়ের একটি চুক্তি অনুমোদন দিয়েছে। কমিটি। দরপত্রে সর্বোচ্চ স্কোর অর্জনকারী দরদাতা প্রতিষ্ঠান দোহাটেক নিউ মিডিয়া, বাংলাদেশ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। এজন্য ব্যয় হবে ৪০ কোটি ১১ লাখ ৮৫ হাজার ২৬৩ টাকা।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বৈঠকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড ও স্থানীয় সরকার বিভাগের ‘দ‌্য ডিজাস্টার্স রিক্স ম্যানেজমেন্ট এনহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্ট’ শীর্ষক একটি প্রকল্পের জন্য পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১২১ কোটি ৭৯ লাখ ৯৬ হাজার টাকা। ওরিয়েন্টেট গ্লোবাল নামে একটি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান এ সেবা দিবে।

বৈটকে সড়ক ওজনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন কন্সট্রাকশন অব কম্পিউটারাইজড টোল প্লাজা এনক্লুডিং অপারেশন অ্যান্ড মেইনটেন্যান্স সিস্টেম অ্যাট থারটিনথ কিলোমিটার (ধলেশ্বরী ব্রিজ) অব ঢাকা-মাওয়া-ভাঙা-বরিশাল-পটুয়াখালী রোড আন্ডার মুন্সিগঞ্জ রোড ডিভিশন ডিউরিং দ‌্য ইয়ার ২০০৯-২০১০ সম্পর্কিত সেবা কাজের ভেরিয়েশন’ এর প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রকল্পের অতিরিক্ত ৮ কোটি ১৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা ব্যয় বেড়েছে।


ঢাকা/হাসনাত/সাইফ