ঢাকা, বুধবার, ২৫ চৈত্র ১৪২৬, ০৮ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক-মেয়াদি হিসাবের অটোমেশন উদ্বোধন

বিশেষ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-১১ ১২:৪৩:২৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-১৪ ৯:৪৩:২৪ পিএম

ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক ও মেয়াদি হিসাবের অটোমেশন কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বুধবার (১১ মার্চ) সকালে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ল্যাপটপে সুইচ টিপে তিনি এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

এ সময় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম, অর্থ সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার জাতীয় সঞ্চয় অধিদফতরের মহাপরিচালক সামছুন্নাহার বেগম, ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক সুধাংশ শেখর ভদ্র প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

১৭ মার্চ থেকে ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকের সুদের হার ১১ দশমিক ২৮ শতাংশ চালু হচ্ছে। অর্থাৎ আগের অবস্থানে ফিরে আসবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

অর্থমন্ত্রী বলেন, কালো টাকা এবং অতিরিক্ত বিনিয়োগ বন্ধে ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকে অনলাইন (অটোমেশন) পদ্ধতি চালু হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি দায়িত্ব না নিতেন তাহলে পোস্ট অফিস বলে কোনো কিছু আমরা দেখতে পেতাম না। পোস্ট অফিস কনসেপ্টটাই হারিয়ে গিয়েছিলো। গ্রামীণ ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্য হলেও পোস্ট অফিসকে আমরা বাতিল করতে পারি না। পোস্ট অফিস না থাকলে গ্রামীণ জনগণ কোথায় টাকা রাখবে?

মুস্তফা কামাল বলেন, ডিমান্ড ডিপোজিট সাত দশমিক পাঁচ এবং ফিক্সড টাইমে হবে ১১ পয়েন্ট ২৮ যা আগের রেট তাই থাকছে। যে আয়টা করবে এখান থেকে তা ট্যাক্স ফ্রি না, আয়কর দিতে হবে এজন্য টিন নম্বর ও ন্যাশনাল আইডি নিচ্ছি। এনআইডি নিচ্ছি তাদের চিহ্নিত করার জন্য কত টাকা করলো, অতিরিক্ত করলো কিনা। দেশের যেকোনো জায়গায় করলে লিমিট ক্রস করতে পারবে না এবং ট্যাক্সের আওতায় আসবে। সরকার রাজস্ব আয় করবে।’

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ‘আজকে এটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হলেও ইন্টারনাল কিছু কাজ বাকি থাকায় এ কার্যক্রম আগামী ১৭ মার্চ থেকে সারা দেশের প্রধান ডাকঘরগুলোতে শুরু হবে। আগামী ১৭ মার্চ থেকেই ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমে আগের সুদহার বহাল করা হবে।’

এদিকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমে সুদহার প্রায় অর্ধেক করে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি একটি পরিপত্র জারি করে। পরিপত্র অনুযায়ী সুদের হার কমেছে ডাকঘরের সঞ্চয় স্কিমের মেয়াদি হিসাব ও সাধারণ হিসাবে। সাধারণ হিসাবের ক্ষেত্রে সুদের হার সাড়ে ৭ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করা হয়েছে। আর তিন বছর মেয়াদি ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের সুদের হার হবে ৬ শতাংশ, যা এতদিন ১১ দশমিক ২৮ শতাংশ ছিল। মেয়াদপূর্তির আগে ভাঙানোর ক্ষেত্রে এক বছরের জন্য সুদ মিলবে ৫ শতাংশ, আগে যা ছিল ১০ দশমিক ২০ শতাংশ। দুই বছরের ক্ষেত্রে তা সাড়ে ৫ শতাংশ, আগে যা ছিল ১০ দশমিক ৭০ শতাংশ।

ডাকঘরের সঞ্চয় স্কিমে সুদহার অর্ধেক করায় সংসদের ভেতরে ও বাইরে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়। সমালোচনার মুখে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের সুদের হারের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করার আশ্বাস দিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী। সে অনুযায়ী আজকে অর্থমন্ত্রী বলেন, ১৭ মার্চের মধ্যে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের সুদের হার আগের মতো ১১ দশমিক ২৮-এ আবারো ফিরে যাবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ডাক বিভাগকে যুযোপযোগী করার পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক সাধারণ ও মেয়াদি হিসাব অটোমেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন তারই অংশ। সারা দেশে ডাক বিভাগের যে নেটওয়ার্ক রয়েছে—তা অন্যকোনো বিভাগের নেই। কাজেই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার যে ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে কাজ করছে—এটা তারই অংশ। আশা করছি ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক সাধারণ ও মেয়াদি হিসাব অটোমেশন হওয়ার পর সুবিধাভোগিদের সুবিধা আরো বাড়বে।

অনুষ্ঠানে অর্থ সচিব আব্দুর রউফ পাওয়ার পয়েন্টে ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক সাধারণ ও মেয়াদি হিসাব অটোমেশনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।


ঢাকা/হাসনাত/জেনিস/সাইফ