ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৯ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

যেসব সেবায় গুরত্ব দিয়েছে প্রিমিয়ার ব্যাংক

নুরুজ্জামান তানিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৪ ৮:৩৫:৩৭ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-০৪ ৩:২৫:৩২ পিএম

সারা দেশে করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটির মধ্যেও ঝুঁকি নিয়ে বিরামহীন ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে প্রিমিয়ার ব্যাংক।

বর্তমানে ব্যাংকটির মোট ১১৪টি শাখায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গ্রাহকেদের ব্যাংকিং সেবা দেওয়া হচ্ছে। এ সংকটময় পরিস্থিতিতে গ্রাহক সেবার অংশ হিসেবে এটিএম বুথ, মোবাইল অ্যাপ ও অনলাইন সেবা ও কল সেন্টারের ওপর বিশেষ গুরত্ব দিয়েছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাব মোকাবিলায় ব্যাংকিং কার্যক্রম নিয়ে রাইজিংবিডির সঙ্গে আলাপকালে প্রিমিয়ার ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ নওশের আলী এসব কথা বলেন।

সৈয়দ নওশের আলী বলেন, ‘করোনাকালীন সময়ে গ্রাহকদের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনায় এনে এটিএম বুথ, অনলাইন ও অ্যাপভিত্তিক সেবাও ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে প্রিমিয়ার ব্যাংক। এটিএমগুলোতে ২৪ ঘণ্টা বিশেষ খেয়াল রাখা হচ্ছে। যাতে গ্রাহকরা প্রয়োজন অনুযায়ী টাকা তুলতে পারেন। প্রয়োজন অনুযায়ী কর্মকর্তারা বুথগুলো সশরীরে পরিদর্শন করছেন। ফলে সর্বপরি গ্রাহকরা যেন কোনোভাবেই ভোগান্তিতে না পড়ে সে বিষয়টিকে গুরত্ব দেওয়া হচ্ছে। একইসঙ্গে ২৪ ঘণ্টাই আমাদের কল সেন্টার থেকে গ্রাহকদের সাপোর্ট দেওয়া হচ্ছে।’

অ্যাপভিত্তিক সেবার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বর্তমানে গ্রাহকরা অনলাইন ট্রেডিংয়েই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন। বিশেষ করে গ্রাহকরা  পিমানি অ্যাপ ব্যবহার করে ঘরে বসেই সেবা নিচ্ছেন। পিমানি অ্যাপটিতে ব্যাংকিং, বিলস-পে, ফান্ড ট্রান্সফার, প্রোডাক্টস, মোবাইল টপ-আপ, ওয়েব ইন্টারফেস, ইএমআই পার্টনারস, মার্চেন্ট পেমেন্ট, মাই কিউআর কোড, ডিসকাউন্ট পার্টনারস, সার্ভিস রিকোয়েস্ট, বেনিফিসিয়ারি ম্যানেজমেন্ট, কন্টাক্ট পিবিএল, ইনফরমেশন অ্যান্ড লিংকস, মেইল নোটিফিকেশনসহ নানা সেবা পাওয়া যাবে। স্মার্টফোন ও ডেস্কটপ ব্যবহারকারী যে কেউ অ্যাপটির মাধ্যমে এসব সেবা পাবেন। ফলে অনেকেই ঘরে বসেই সব প্রকার আর্থিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে পারছেন গ্রাহকরা। এ পরিস্থিতিতে অনলাইন ও অ্যপভিত্তিক সেবার নেওয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়েছেন গ্রাহকরা।’

ব্যাংকিং সেবায় বিশেষ ছাড় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘করোনার প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও গ্রাহকসেবায় যেন কমতি না থাকে সেদিক বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। কোনো সার্ভিস চার্জ বা ফি দেওয়া ছাড়াই ব্যাংকের সব ধরনের অনলাইন আর্থিক সেবা নিতে পারবেন গ্রাহকরা। গ্রাহকরা এসব সেবা যেন নিরাপদ, নির্বিঘ্ন ও নিয়মিতভাবে নিতে পারেন সেজন্য ব্যাপক নজরদারিও রাখা হয়েছে।’

কর্মী সেবা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘করোনায় সৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবিলায় ব্যাংকটির শাখায়গুলোতে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উৎসাহিত করতে বিশেষ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি নিশ্চিত করা হয়েছে তাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা।ব্যাংক কর্মকর্তাদের মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ ভাইরাস প্রতিরোধে জীবাণুনাশক দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তাকর্মীদেরও একই সুবিধার আওতায় আনা হয়েছে। গ্রাহকদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার মাধ‌্যমে হাত পরিষ্কারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আর সর্বপরি ব্যাংকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এ জন্য গ্রাহকদের লাইন বড় হয়ে গেলেও স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি পরিপূর্ণভাবে নিশ্চিত করা হচ্ছে। এছাড়া, মাস্কবিহীন কোনো গ্রাহক ব্যাংকের প্রিমিসেস প্রবেশ করছে কি-না তা খেয়াল রাখা হচ্ছে।’

করোনা পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদান হিসেবে প্রমিয়ার ব্যাংক থেকে ৫ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে বলে সৈয়দ নওশের আলী জানান।

 

ঢাকা/এনটি/ইভা