ঢাকা, সোমবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৫ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

বন্ধের মধ্যেও চলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি কার্যক্রম

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-২৪ ২:১৪:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-২৪ ৩:৫৬:৪৪ পিএম

আড়াই হাজারের বেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তি করার কার্যক্রম সম্পন্ন করতে নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি) থেকে দ্রুত সময়ের মধ্যে যাচাই-বাছাই শেষে প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের ব্যক্তিগত কোড নম্বর যুক্ত করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

গত ২২ এপ্রিল (বুধবার) বেসরকারি শিক্ষকদের একাধিক সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানানোর পর এ কার্যক্রম নতুন করে শুরু করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে সাধারণ ছুটি থাকায় এমপিওভুক্তি কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়।  শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশে বন্ধের মধ্যে চলমান এ কার্যক্রম সম্পন্ন করতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, নতুন এমপিওভুক্তি করতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রকাশ করার পর তা যাচাই-বাছাই কার্যক্রম শুরু করা হয়। একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠনের মাধ্যমে এ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। বর্তমানে সব তথ্য যাচাই-বাছাই করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের ব্যক্তিগত কোড নম্বর দেওয়া হবে। কাজ শেষে আলাদা দুটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। বন্ধের মধ্যেও এ কার্যক্রম শেষ করতে নতুনভাবে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। গত বছরের জুলাই থেকে এসব শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা সুবিধা দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

২০১৮ সালে এমপিওভুক্তির জন্য প্রায় ৯ হাজার নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনলাইনে আবেদন করে। এই আবেদন যাচাই-বাছাই শেষে ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর ২ হাজার ৭৩০টি নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির জন্য তালিকা প্রকাশ করা হয়। এসব প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘ ছয় মাস ধরে প্রায় ৩০ হাজার শিক্ষক-কর্মচারীদের সরকারি অংশের বেতন-ভাতা চালু না হওয়ায় বেসরকারি শিক্ষক সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে মানবিক আবেদন করা হয়। তারপর এ কার্যক্রম আবারো শুরু করার সিদ্ধান্ত নিলো শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

 

ঢাকা/ইয়ামিন/জেডআর