ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বলার চেয়ে কাজে বিশ্বাসী : মানতাসা

আমিনুল ইসলাম শান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-০২ ৮:১৭:৫১ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-১৭ ২:০৮:৩৯ পিএম
বলার চেয়ে কাজে বিশ্বাসী : মানতাসা
Voice Control HD Smart LED

আমিনুল ইসলাম শান্ত : ‘লাক্স সুপারস্টার ২০১৮’ বিজয়ী মিম মানতাসা। পাবনার মেয়ে মিম জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের স্নাতক শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়ার পর বেশ কিছু নাটকে অভিনয়ও করেছেন। নানা প্রাপ্তিসহ সদ্য বিদায়ী ২০১৮ সালটি বেশ ভালো কেটেছে মিম মানতাসার। এ বিষয়ে রাইজিংবিডির সঙ্গে কথা বলেন এই অভিনেত্রী। এ আলাপচারিতার বিশেষ অংশ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

রাইজিংবিডি : পাওয়া না পাওয়া মিলিয়ে ২০১৮ সাল কেমন কেটেছে?
মানতাসা : অবশ্যই অনেক ভালো কেটেছে। যতটা আশা করেছিলাম, বছরটি তার চেয়েও ভালো কেটেছে।

রাইজিংবিডি : গত বছর আপনার সবচেয়ে বড় অর্জন কী?
মানতাসা : লাক্স প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়াটাই গত বছরের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি। গত বছর তেমন একটা কাজ করা হয়নি। যতটুকু করেছি সেটাই অনেক বড়। তাছাড়া পরিবার ও অন্যান্যদের খুশি করতে পেরেছি এটাও আমার জন্য বিশাল পাওয়া।

রাইজিংবিডি : ব্যর্থতার ঝুলিতেও কী কিছু জমা পড়েছে?
মানতাসা : না, এ তালিকায় কিছু নেই। আসলে আমার জীবনে এমনটা কখনো মনেই হয়নি। আমি যা পেয়েছি আলহামদুলিল্লাহ ভালো পেয়েছি।

রাইজিংবিডি : বর্তমান ব্যস্ততা প্রসঙ্গে জানতে চাই।
মানতাসা : আমি স্নাতক শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। বর্তমানে পড়াশোনা নিয়েই আমার মূল ব্যস্ততা। আপাতত পড়াশোনোর দিকেই বেশি মনোযোগ দিয়েছি। এছাড়া ‘বিউটি অ্যান্ড দ্য বুলেট’ নামে সাত পর্বের একটি ওয়েব ধারাবাহিক নির্মাণ করছেন অনিমেষ আইচ দাদা। লাক্স অরিজিনাল সিরিজের ব্যানারে এটি নির্মিত হচ্ছে। কয়েকদিন আগে আমিও এতে কাজ করলাম।

রাইজিংবিডি : অভিনয়ে আপনাকে খুব বেশি পাওয়া যাচ্ছে না, এ বিষয়ে কী ভাবছেন?
মানতাসা : অবশ্যই অভিনয়ে নিয়মিত হবো। তবে আমার কাছে মনে হচ্ছে, অভিনয়ে আমি নিয়মিত। কারণ খুব বেশি কাজ করব এমন পরিকল্পনা আমার কখনো ছিল না। তাই অল্প অল্প কাজ করছি। তাছাড়া পড়াশোনার কারণে অভিনয়ে আমার উপস্থিতি আপাতত কম। পড়াশোনাটা আগে শেষ করতে চাই। যেসব কাজ করছি তা পড়াশোনার পাশাপাশি করে যাচ্ছি। তাছাড়া সময়ের সঙ্গে অভিনয়ে ভালো করার চেষ্টাও অব্যাহত রেখেছি।

রাইজিংবিডি : পড়াশোনা শেষে বড় নাকি ছোট পর্দার দিকে বেশি মনোযোগী হতে চান?
মানতাসা : আগে দেখব কোন মাধ্যমের কাজটি ভালো করতে পারি। তারপরই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবো।

রাইজিংবিডি : বিশেষ কোনো লক্ষ্য আছে কী, যা নতুন বছর পূরণ করতে চান?
মানতাসা : বিশেষ কোনো লক্ষ্য নেই। তবে ভালোভাবে কাজ করে যেতে চাই। কাজ নিয়েও যে অনেক বড় পরিকল্পনা করেছি ঠিক তাও নয়। তবে অবশ্যই এ বছর ভালো কিছু কাজ দর্শকদের উপহার দিতে চাই।

রাইজিংবিডি : মানুষের জীবনে বিয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। বিয়ে নিয়ে কোনো পরিকল্পনা করেছেন কিনা?
মানতাসা : না না না, এখনো আমি অনেক ছোট। এখনি বিয়ে করার কোনো পরিকল্পনা নেই।

রাইজিংবিডি : লাক্স সুপারস্টার হওয়ার পর বেশ যশ-খ্যাতি পেয়েছেন। মানুষের ভালোবাসা পেয়েছেন। সাধারণ মানুষের জন্য কল্যাণকর এমন কোনো কাজ করছেন কিনা?
মানতাসা : সাধারণ মানুষের জন্য কিছু করব-এ চিন্তা অনেক আগে থেকেই ভেতরে লালন করছি। মানুষের জন্য কিছু করব-এমন ইচ্ছে অনেকেরই আছে, আমিও এর ব্যতিক্রম নই। তবে বলার চেয়ে আমি কাজে বিশ্বাসী। যাই হোক, ভবিষ্যতে আমিও মানুষের জন্য কল্যাণকর কিছু করতে চাই। আমার পরিকল্পনা হচ্ছে-অনাথ শিশুদের নিয়ে কাজ করা, যারা পড়াশোনা করতে পারছে না বা মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। তবে আর্থিকভাবে এখন আমি স্বচ্ছল তা বলব না। নিজেকে আর একটু স্থিতিশীল পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে। অর্থাৎ যে পর্যায়ে গিয়ে আসলেই আমি কিছু করতে পারব। এজন্য আরেকটু সময় প্রয়োজন। তারপর অবশ্যই আমি এ কাজ করব।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২ জানুয়ারি ২০১৯/শান্ত/মারুফ  

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge