ঢাকা, সোমবার, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

আইএস যোদ্ধাপত্নী ব্রিটিশ-বাংলাদেশিকে ফিরতে দেওয়া হবে না

শাহেদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০২-১৫ ১০:৫৭:১৬ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-১৫ ২:০৭:৩৩ পিএম
আইএস যোদ্ধাপত্নী ব্রিটিশ-বাংলাদেশিকে ফিরতে দেওয়া হবে না
Walton E-plaza

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সিরিয়ায় সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দেওয়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ তরুণীকে লন্ডনে ফিরতে দেওয়া নাও হতে পারে বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ বলেছেন, ‘আমার বার্তা সুষ্পষ্ট। আপনি বিদেশি সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে সমর্থন জানালে আমি আপনাকে দেশে ফিরতে বাধা দিতে দ্বিধান্বিত হবো না।’

তিনি জানান, তারপরেও শামিমা বেগম দেশে ফিরলে তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।

জাভিদ বলেন, ‘আমাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে যারা দায়েশে (আইএস) যোগ দিতে ব্রিটেন ছেড়েছিল তারা পূর্ণমাত্রায় আমাদের দেশকে ঘৃণা করতো। আপনি যদি দেশে ফিরতে সক্ষম হন তাহলে আপনাকে জিজ্ঞাসাবাদ, তদন্ত ও সম্ভাব্য বিচারের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।’

ব্রিটিশ দৈনিক টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ১৯ বছরের শামিমা বেগম জানিয়েছেন, আইএসে যোগ দিতে সিরিয়ার যাওয়ার জন্য তার অনুতাপ নেই । তবে অনাগত সন্তানের জন্য লন্ডনে পরিবারের কাছে ফিরতে চান তিনি। শামিমার জন্য ক্ষমা প্রার্থণা করে ইতোমধ্যে তার পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে।

২০১৫ সালে বেথনাল গ্রিন একাডেমির নবম শ্রেণির ছাত্র শামীমা ও তার সহপাঠী আরেক ব্রিটিশ-বাংলাদেশি খাদিজা সুলতানাসহ তিন তরুণী আইএসে যোগ দিতে সিরিয়ায় পাড়ি জমান। আইএস ঘাঁটিতে ধর্মান্তরিত এক ডাচকে বিয়ে করা শামিমা এখন নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এর আগে তার দুটি সন্তান হলেও তারা মারা গেছে। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে আশ্রয় পাওয়া শামিমা এখন তার অনাগত সন্তানকে বাঁচাতে চান। আর এর জন্যই তিনি ফিরতে চান লন্ডনে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/শাহেদ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       
Marcel Fridge