ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরু

আরিফ সাওন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-১০ ৭:০৬:০০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-১১ ১২:১৯:০৮ পিএম
খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরু
Voice Control HD Smart LED

নিজস্ব প্রতিবেদক : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরু হয়েছে।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিক্যাল বোর্ড বুধবার বিকেলে তাকে দেখতে যান। পরে সন্ধ্যায় বিএসএমএমইউর অতিরিক্ত পরিচালক ডা. নাজমুল করিম মানিক সাংবাদিকদের জানান, আজ দুপুর থেকে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, ‌‌‌‌‌‌‌‌আমাদের মেডিক্যাল বোর্ড খালেদা জিয়াকে দেখেছেন। সবকিছু পর্যালোচনাসহ তার সাথে কথা বলে এসেছেন এবং তারা চিকিৎসা শুরু করে দিয়েছেন। চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয় একান্তই মেডিক্যাল বোর্ড এবং রোগীর। এ ব্যাপারে আমরা আর কিছু বলতে পারছি না। তারা (মেডিক্যাল বোর্ড) রোগীকে দেখেছেন, কথা বলেছেন, পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছেন। আজকে দুপুর থেকেই তার চিকিৎসা শুরু হয়ে গেছে।

এ সময় বিএসএমএমইউর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন বলেন, চিকিৎসা শুরু করা হয়েছে। মেডিক্যাল বোর্ড উনাকে (বেগম জিয়াকে) দেখেছেন।

আজ চিকিৎসা শুরু করা হলেও সোমবার মেডিক্যাল বোর্ড সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়েছিল, খালেদা জিয়ার মূল চিকিৎসা শুরু করতে আরো দুই সপ্তাহ সময় লাগবে। আজকে প্রাথমিক চিকিৎসা নাকি মূল চিকিৎসা শুরু করা হয়েছে, এ বিষয়ে তারা বিস্তারিত জানাননি।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিএসএমএমইউর পরিচালক রাইজিংবিডিকে মুঠোফোনে বলেছিলেন, মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে বেগম খালেদা জিয়াকে ফিজিওথেরাপি দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, আজ বিকেল ৪টার দিকে মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান এবং বিএসএমএমইউ'র ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. আবদুল জলিল চৌধুরী, রিউমাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আতিকুল হক, ফিজিক্যাল মেডিসিন অ্যান্ড রিহ্যাবলিটেশন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বদরুন্নেসা আহমেদ দেখতে যান। এছাড়া, কার্ডিওলজি বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জি এবং অর্থোপেডিক বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. নকুল কুমার দত্তের অনুপস্থিতিতে অন্য দুজন চিকিৎসক মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্য হিসেবে খালেদা জিয়াকে দেখতে যান। তারা ৪টার দিকে খালেদা জিয়ার কেবিনে যান এবং ৫টার দিকে বেরিয়ে আসেন।

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫। এরপর থেকে খালেদা জিয়া নাজিমুদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে ছিলেন। ওই মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ের পাঁচ মাসের মাথায় ১২ জুলাই আপিলের ওপর শুনানি শুরু হয়।

এদিকে, খালেদার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য একটি বিশেষ বোর্ড গঠন করার নির্দেশনাসহ তার চিকিৎসা-সংক্রান্ত যাবতীয় নথিপত্র দাখিলের নির্দেশনা চেয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর একটি রিট করা হয়। ওই আবেদনের ওপরই আদালত আদেশটি দেন। এর মধ্যে আবার গত ১৫ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত পাঁচ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে গিয়ে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে। পরদিন ১৬ সেপ্টেম্বর সেই স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। যেখানে স্বাস্থ্যগত পরিস্থিতি বিবেচনায় খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়ার মত দেয় মেডিক্যাল বোর্ড। তবে যে হাসপাতালে সব ধরনের চিকিৎসা সুবিধা রয়েছে, সেই হাসপাতালের কথা সুপারিশ করা হয়। সেই বিবেচনায় বিএসএমএমইউ হাসপাতালের কথাই উল্লেখ করা হয় প্রতিবেদনে। এরপর ৬ অক্টোবর তাকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ অক্টোবর ২০১৮/সাওন/রফিক

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge