ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘প্রসবকালীন মৃত্যুর হার ১.৬৯’

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১০ ৫:১২:১১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-১০ ৫:১৮:৫৮ পিএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : ২৫ বছর আগে স্বল্পোন্নত দেশসমূহে প্রতি এক হাজার নারীর মধ্যে ৮ জন প্রসবকালীন সময়ে মারা যেতেন। বর্তমানে তা অর্ধেকে নেমে এসেছে। বাংলাদেশে ২০১৪ সালে মৃত্যুর হার ছিল ৩.২০। বর্তমানে তা কমে দাঁড়িয়েছে ১.৬৯।

এসভিআরএস-২০১৮ এর বরাত দিয়ে বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ সচিব আসাদুল ইসলাম এ তথ্য জানান। ১১ জুলাই বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সচিব বলেন, স্বল্পোন্নত দেশসমূহে ১৯৯৪ সালে যেখানে মাত্র ১৫ শতাংশ নারী আধুনিক পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি ব্যবহার করতেন, সেখানে বর্তমানে তা বেড়ে ৩৭ শতাংশ হয়েছে। বাংলাদেশে এ হার বর্তমানে ৬১.৬ শতাংশ বেড়েছে।

তিনি বলেন, স্বল্প আয়ের দেশে ২৫ বছর আগে একজন নারী কমপক্ষে ৬টি সন্তান জন্ম দিতেন, যা বর্তমানে ৪ এর নীচে নেমে এসেছে। বাংলাদেশে এ হার বর্তমানে ২.০৫ শতাংশ।

সচিব বলেন, বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অর্জন নবজাতকের মৃত্যু (বর্তমানে প্রতি হাজার জীবিত জন্মে ২২ জন), ৫ বছর কমবয়সী শিশুর মৃত্যু (বর্তমানে প্রতি হাজার জীবিত জন্মে ২৯ জন) এবং মাতৃমৃত্যুর হার (বর্তমানে প্রতি হাজার জীবিত জন্মে ১.৬৯ জন) হ্রাস, প্রত্যাশিত আয়ুষ্কাল বৃদ্ধি (বর্তমানে ৭২.৩), পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি ব্যবহারের হার (বর্তমানে ৬৩.১%) বৃদ্ধি, দারিদ্র্য বিমোচন, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষার উন্নয়ন, জেন্ডার বৈষম্য হ্রাসকরণ। এ সবই কায়রো সম্মেলনের কর্মকৌশল বাস্তবায়নের অংশ।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালন করা হবে। এবারে দিবসটির প্রতিপাদ্য বিষয় হলো-‘জনসংখ্য ও উন্নয়নে আন্তর্জাতিক সম্মেলনের ২৫ বছর: প্রতিশ্রুতির দ্রুত বাস্তবায়ন’।

দিবসটি উপলক্ষে কেন্দ্রীয় পর্যায়ে বৃহ্স্পতিবার ৮.৩০ মিনিটে সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজা থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হবে। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে সকাল সাড়ে দশটায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হবে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ জুলাই ২০১৯/নঈমুদ্দীন/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন