ঢাকা, সোমবার, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০১ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘এক জেলা থেকে অন্য জেলা-উপজেলায় চলাচলে নিয়ন্ত্রণ’

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৬ ৬:১০:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-০৭ ৯:৩১:২৫ এএম

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রশমনে জনগণকে অবশ্যই ঘরে অবস্থান করতে হবে। রাত ৮টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না।

এছাড়া এক জেলা থেকে অন্য জেলা এবং এক উপজেলা থেকে অন্য উপজেলায় জনসাধারণের চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত থাকবে।

বুধবার (০৬ মে) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ এক ঘোষণায় এসব নির্দেশনা দেন।

ঘোষণায় বলা হয়েছে- এর আগে সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮ (২০১৮ সালের ৬১ নং আইন) এর ১১(১) ধারার ক্ষমতাবলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গত ১৬ এপ্রিলের ঘোষণার উল্লেখিত নির্দেশনাগুলো পরিবর্তিত হবে।

পরিবর্তিত ঘোষণাগুলো হচ্ছে- করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রশমনে জনগণকে অবশ্যই ঘরে অবস্থান করতে হবে।  সন্ধ্যা ৬টার পরিবর্তে রাত ৮টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত অতি জরুরি প্রয়োজন (প্রয়োজনীয় ক্রয়-বিক্রয়, খাদ্যদ্রব্য, ওষুধ ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ সৎকার ইত্যাদি) ছাড়া কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে আসা যাবে না।

এক জেলা থেকে অন্য জেলা এবং এক উপজেলা থেকে অন্য উপজেলায় জনসাধারণের চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত থাকবে। জেলা প্রশাসন/আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ সতর্কভাবে বাস্তবায়ন করবে।

যেসব জেলা-উপজেলা এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস সংক্রমণমুক্ত রয়েছে সেসব এলাকায় বহিরাগতদের আগমন কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করে, বিশেষ ব্যবস্থাপনায় যুক্তিসঙ্গতভাবে স্বাভাবিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখা যাবে।

চলাচল নিষেধাজ্ঞার সময়ে জনসাধারণ এবং সব কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ জারি করা নির্দেশমালা কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রস্তুত করা কারিগরি নির্দেশনাগুলো সর্বস্তরে বাস্তবায়নের পরামর্শ দেওয়া হলো বলে ঘোষণায় উল্লেখ করেন তিনি।

 

ঢাকা/সাওন/জেডআর