ঢাকা     শুক্রবার   ১৪ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ৩০ ১৪২৭ ||  ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

বেঁচে থেকে মৃত্যুর অভিজ্ঞতা

283 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:০৩, ৬ নভেম্বর ২০১৯  
বেঁচে থেকে মৃত্যুর অভিজ্ঞতা

 মৃত্যু বা এর পরবর্তী জীবন নিয়ে মানুষের জিজ্ঞাসার শেষ নেই। তবে জীবন নদীর ওপারের রহস্য আজও উন্মোচন করা সম্ভব হয়নি। দক্ষিণ কোরিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান মৃত্যুর পর কেমন হতে পারে সেই ধারণা দিতে জীবন্ত মানুষদের নিয়ে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার আয়োজন করেছে। গত কয়েক বছরে এতে অংশ নিয়েছে ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষ।

এই ‘জীবন্ত অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার’ আয়োজন করছে হাইওন হিলিং সেন্টার নামের একটি প্রতিষ্ঠান। তাদের দাবি, মানুষকে মৃত্যুর অভিনয় করিয়ে তাদের জীবন মান উন্নয়ন করাতে চায় তারা।

এই অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় কিশোর থেকে বৃদ্ধ অনেকেই সরাসরি এতে অংশ নিয়েছেন। এদের কেউ কাফন পরিধান করেছেন, মৃতের ছবি বহন করেছেন, মৃত্যুকালীন ঘোষণা লিপিবদ্ধ  করেছেন এবং বদ্ধ কফিনে ১০ মিনিট করে অবস্থান করেছেন।

এতে অংশ নেওয়া ৭৫ বছরের চো জায়ে হি বলেন, ‘আপনি যখন মৃত্যু সম্পর্কে সচেতন হবেন এবং এর অভিজ্ঞতা নেবেন, আপনি একটি নতুন জীবনকে গ্রহণ করবেন।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী চোই জিন কিউ জানান, কফিনের ভেতরে অবস্থানের সময় তিনি বুঝতে পারছিলেন, প্রায়ই তিনি অন্যদের নিজের প্রতিযোগী বলে ভাবতেন।

২৮ বছরের এই তরুণ বলেন, ‘আমি যখন কফিনের ভেতর ছিলাম তখন মনে হলো এসব করে কী লাভ।’ তাই এখন স্নাতোকোত্তর শেষ করার পর উচ্চপ্রতিযোগিতার চাকরির বাজারে তিনি আর প্রবেশ করতে চান না। তিনি এখন নিজেই ব্যবসা শুরু করতে চান।

অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আয়োজক প্রতিষ্ঠান হাইওনের প্রধান জিয়ং ইয়োং মান জানান, তাদের এই জীবন্ত অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আয়োজনের উদ্দেশ্য হচ্ছে লোকজনকে যাতে তাদের জীবনকে উপলব্ধি করতে পারে, ক্ষমা প্রদর্শণ করতে পারে এবং পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে মিলেমিশে চলতে পারে।


ঢাকা/শাহেদ

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়