ঢাকা, রবিবার, ১৫ চৈত্র ১৪২৬, ২৯ মার্চ ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

করোনাভাইরাসে শিশুরা কম আক্রান্ত হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-১৮ ১০:৩৫:১৯ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-১৮ ১০:৩৫:১৯ এএম

কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ৭৭০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৭১ হাজার ৪৪০ জন। এর মধ্যে শুধু চীনেই আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ হাজার ৫৪৮।

কিন্তু অবাক করা বিষয় হচ্ছে এত সংখ্যক লোক মারা গেলেও এবং প্রতিদিন নতুন নতুন লোক নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেও শিশুরা এই ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হচ্ছে না।

চীনে গত ৫ ফেব্রুয়ারি জন্মের মাত্র ৩০ ঘণ্টা পর এক নবজাতক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়। যা সবচেয়ে কম বয়সে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা।

করোনা ভাইরাস নিয়ে সর্বশেষ গবেষণাটি আমেরিকান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। এতে দেখা গেছে, ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে অর্ধেকেরই বয়স ৪০ থেকে ৫৯ বছরের মধ্যে। মাত্র ১০ শতাংশ রোগী ৩৯ বছরের কম বয়সী। আক্রান্তদের মধ্যে শিশুদের সংখ্যা খুবই কম।

কিন্তু শিশুরা কেন আক্রান্ত হচ্ছে না এ বিষয়ে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের কাছে সুনির্দিষ্ট জবাব নেই।

ইউনিভার্সিটি অব রিডিংয়ের ভাইরাস সম্পর্কিত বিজ্ঞান বা ভাইরোলজির অধ্যাপক ইয়ান জোনস বিবিসিকে বলেন, ‘শিশুদের মধ্যে সংক্রমণের ঘটনা বিরল। কারণ পুরোপুরি স্পষ্ট নয়। হয় শিশুরা সংক্রমণ এড়িয়ে যাচ্ছে, নয়তো তারা মারাত্মক সংক্রমণের শিকার হচ্ছে না।’

এ বিষয়ে সহমত জানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের ক্লিনিক্যাল প্রভাষক নাথালি ম্যাকডারমট। বলেন, ‘পাঁচ বছরের বেশি বয়সি এবং কিশোরদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভাইরাস মোকাবেলায় বিশেষভাবে কাজ করে। তারা হয়তো আক্রান্ত কিন্তু তাদের সংক্রমণটা বেশ মৃদু বা তাদের মধ্যে সংক্রমণের কোন উপসর্গ থাকে না।’

ইয়ান জোনস আরো বলেন, ‘নিউমোনিয়া (করোনা ভাইরাসের উপসর্গগুলোর মধ্যে একটি) তাদেরকেই বেশি আক্রান্ত করে যাদের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল।’

শরীরে রোগ-জীবাণু প্রবেশ করলে প্রথমেই জন্মগতভাবে প্রাপ্ত ইমিউনো সিস্টেম বা রোগ প্রতিরোধক পদ্ধতি সেগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই করে। অপর দিকে, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর মাধ্যমে যে রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা (Adaptive immune system) গড়ে ওঠে তা অনেক পরে জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অংশ নেয়। যদি জন্মগতভাবে প্রাপ্ত প্রতিরোধ ক্ষমতা শিশুদের ক্ষেত্রে বেশি শক্তিশালী হয়, তবে বয়স্কদের চেয়ে শিশুরা নোভেল করোনাভাইরাসে কম আক্রান্ত হবে।



ঢাকা/জেনিস