ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭, ০২ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

লন্ডনে হাজার হাজার মানুষের বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-০৩ ৮:৪৪:৪০ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-০৩ ৮:৪৪:৪০ পিএম

সবার মুখে একই স্লোগান-‘কোনো বিচার নয় , শান্তি নয়’, ‘বর্ণবাদী পুলিশ নয়’ এবং ‘কৃষ্ণাঙ্গদের জীবনের দাম আছে’। বুধবার লন্ডনের কেন্দ্রস্থলে কয়েক হাজার মানুষের বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এই স্লোগানগুলো ভেসে আসে। যুক্তরাষ্ট্রের মিনিয়াপোলিসে পুলিশ হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বিক্ষোভে অংশ নেওয়া অধিকাংশের মুখে মাস্ক ছিল এবং তারা লাল পোশাক পরে এসেছিলেন। কারো কারো হাতে থাকা ব্যানারে লেখা ছিল, ‘যুক্তরাজ্য নিস্পাপ নয়: স্বল্প বর্ণবাদ মানে এখনও বর্ণবাদী।’ কেউ কেউ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধেও স্লোগান দেন।

প্রকল্প পরিচালক ও ৩০ বছরের তরুণ কারেন কোরোমাহ বলেন, ‘বছরের পর বছর ধরে এটি চলে আসছে, বছরের পর বছর ধরে শ্বেতাঙ্গ আধিপত্য চলে আসছে। আধিপত্যবাদী ব্যবস্থা ধ্বংসের জন্য আমরা বন্ধুদের সঙ্গে এখানে এসেছি সতর্কবার্তা দিতে, আওয়াজ তুলতে।’

পরোক্ষভাবে বিক্ষোভের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসন।

বুধবার তিনি জানিয়েছেন, কৃষ্ণাঙ্গদের জীবনের দাম আছে এবং আইনি প্রক্রিয়ায় ও সামাজিক দূরত্ব মেনে বিক্ষোভ করায়ে তার সমর্থন আছে।

জনসন বলেন, ‘অবশ্যই কৃষ্ণাঙ্গদের জীবনের দাম আছে এবং আমি সেই ক্ষোভ ও যে বিষাদ কেবল আমেরিকা নয়, বরং সারাবিশ্ব ও আমাদের দেশে অনুভব হচ্ছে আমি পুরোপুরি তাকে উপলব্ধি করি।’

গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের মিনিপোলিস শহরে ফ্লয়েড নামে ৪৬ বছরের এক কৃষ্ণাঙ্গকে হত্যা করে ডেরেক চাওভিন নামে পুলিশের এক সাবেক কর্মকর্তা। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ফ্লয়েডের গলায় হাঁটু গেড়ে বসে আছেন ডেরেক। এই ঘটনার প্রতিবাদে গত আট দিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ চলছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে ৪০টি শহরে কারফিউ জারি করা হয়েছিল। তবে কারফিউ ভঙ্গ করেও বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় অবস্থান নিয়েছেন। এ পর্যন্ত দেশটিতে ৯ হাজারের বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।


ঢাকা/শাহেদ