ঢাকা, সোমবার, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৮ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন চেয়ারম্যান

মেহেদী হাসান ডালিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-১৬ ১:২৯:১৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-১৬ ৬:৫৫:১০ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : নিম্নমানের ৫২ পণ্য বাজার থেকে সরানোর বিষয়ে যথাযথ ভূমিকা পালন না করায় নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন।

রোববার বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চে হাজির হয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করেন চেয়ারম্যান মাহফুজুল হক। পরে আদালত খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে সর্তক করে দিয়ে ক্ষমা করে দেন। একইসঙ্গে আদালত সারা বছর ভেজাল খাদ্যপণ্যের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর নির্দেশ দেন।

আদালতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী কামাল উল আলম ও এ এম আমিন উদ্দিন।

এর আগে গত ২৩ মে বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়া নামি-দামি কোম্পানি ও প্রতিষ্ঠানের নিম্নমানের ৫২ পণ্য বাজার থেকে না সরানোয় তাকে তলব করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুলও জারি করেন হাইকোর্ট। আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

প্রসঙ্গত, বিএসটিআই ৪০৬টি খাদ্য পণ্যের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করে। এর মধ্যে ৩১৩টি পণ্যের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। ৩১৩টির মধ্যে ৫২ পণ্য মানহীন বলে প্রতিবেদন দেয় বিএসটিআই।

৫২ পণ্যের কয়েকটি প্রতিষ্ঠান আদালতের আদেশ সংশোধন চেয়ে আবেদন করেছিলেন। আদালত তা আমলে নেয়ার মতো কোনো যুক্তি খুঁজে পাননি।

৫২ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে কেউ যদি তাদের পণ্য বাজারজাত করতে পুনরায় টেস্ট করাতে চায় তাহলে ১৩ জুনের মধ্যে তাদের পণ্য টেস্ট করতে বিএসটিআইকে নির্দেশ দেন আদালত।

এর আগে এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ১২ মে হাইকোর্ট বাজার থেকে আইনানুসারে এসব পণ্য সরিয়ে নিতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে ওই আদেশ বাস্তবায়ন করে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়।

** নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান হাইকোর্টে



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ জুন ২০১৯/মেহেদী/ইভা

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন