ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

মার্সেল ফ্রিজ কিনে ব্লু-টুথ স্পিকারযুক্ত টিভি পেলেন আনিসুর

একরাম হোসেন পলাশ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১৫ ৬:৪৭:৫৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-০৪ ৮:৩৮:৩২ পিএম
মার্সেল ফ্রিজ কিনে ব্লু-টুথ স্পিকারযুক্ত টিভি পেলেন আনিসুর
মার্সেল ফ্রিজ কিনে ২০ ইঞ্চির এলইডি টিভি ফ্রি পেলেন আনিসুর
Walton E-plaza

নিজস্ব প্রতিবেদক : টিকে অনেক বছর, দামে কম, দেখতে সুন্দর ও দেশীয় পণ্য-এসব কারণে ফ্রিজ কেনার সময় মার্সেল ব্র্যান্ডের ফ্রিজের প্রতিই আস্থা ব্রাক্ষণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার গোপীনাথপুরের বাসিন্দা আনিসুর রহমানের।

এবার চতুর্থবারের মতো মার্সেল ফ্রিজ কিনলেন তিনি। আর ফ্রিজ কিনে রেজিস্ট্রেশন করতেই পেয়ে যান মার্সেলের শক্তিশালী ব্লু-টুথ স্পিকারযুক্ত ২০ ইঞ্চি এলইডি টিভি সম্পূর্ণ ফ্রি।

ছোট বোন রেকসোনা বেগমের পরিবারের জন্য ফ্রিজ কিনতে গত সোমবার কসবা উপজেলায় মার্সেলের পরিবেশক শোরুম শুভেচ্ছা ইলেকট্রনিক্সে যান সবজি ব্যবসায়ী আনিসুর রহমান। ভাই-বোন পছন্দ করে ২৫ হাজার টাকায় মার্সেলের সাড়ে তের সিএফটির একটি ফ্রিজ কিনেন। ফ্রিজটি কেনার পর দেশব্যাপী চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় আনিসুর রহমান তার মোবাইল ফোনের এসএমএস এর মাধ্যমে তা রেজিস্ট্রেশন করেন। এর পরপরই তিনি মার্সেল ব্র্যান্ডেরই আরেকটি ২০ ইঞ্চি এলইডি টিভি ফ্রি পাওয়ার ফিরতি এসএমএস পান মার্সেল কোম্পানির কাছ থেকে।

মার্সেল সূত্রমতে, বিক্রয়োত্তর সেবা কার্যক্রম অনলাইনের  আওতায় আনতে গত ১ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী আবারো ডিজিটাল ক্যাম্পেইন শুরু করেছে মার্সেল। ক্যাম্পেইনের আওতায় একজন ক্রেতা প্রতিবার মার্সেলের ফ্রিজ, টিভি কিংবা এসি কিনে তা রেজিস্ট্রেশন করলেই পেতে পারেন আমেরিকা, রাশিয়া ভ্রমণের সুযোগ কিংবা মার্সেলেরই ফ্রিজ, টিভি ও এসি সম্পূর্ণ ফ্রি। তবে এসব সুযোগ না পেলেও, ক্রেতার জন্য রয়েছে সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা পর্যন্ত নিশ্চিত নগদ ছাড়।



মার্সেল ফ্রিজ কিনে টিভি ফ্রি পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় আনিসুর রহমান এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘জীবনে এই প্রথম কোনো পুরস্কার পেলাম। খুব আনন্দ লাগছে। মার্সেল ফ্রিজ কিনে টিভি ফ্রি পাওয়ার খবরটি আত্মীয়-স্বজন থেকে শুরু করে বন্ধু-বান্ধব, প্রতিবেশী সবার  কাছে আনন্দের সাথে বলছি। দেশের প্রতিষ্ঠান মার্সেলের ওপর আস্থা রাখাতেই হয়ত এই পুরস্কারটি পেলাম।’

অন্য ব্র্যান্ডের ফ্রিজ না কিনে মার্সেল ফ্রিজ প্রসঙ্গে আনিসুর রহমান জানান, তার হাত দিয়ে এ পর্যন্ত ৪টি ফ্রিজ কেনা হয়েছে। বছর চার-পাঁচেক আগে ভাতিজীর শ্বশুর বাড়িসহ দুই বন্ধুকে মোট তিনটি মার্সেল ফ্রিজ কিনে দিয়েছিলাম। অন্য কোম্পানির ফ্রিজের চেয়ে দেশীয় কোম্পানি মার্সেল ফ্রিজের দাম অনেক কম, দেখতেও সুন্দর। আবার এসব ফ্রিজগুলোতে এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যা হয়নি। তাই এবারও ছোট বোনের জন্য মার্সেল ফ্রিজই কিনলাম।

এদিকে শুভেচ্ছা ইলেক্ট্রনিক্সের সত্ত্বাধিকারী, উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে ব্যানার, ফেস্টুন টাঙানোসহ ব্যান্ডপার্টি ও মাইকিংয়ের মাধ্যমে ক্যাম্পেইনের ব্যাপক প্রচার চালানো হচ্ছে। আর যারা ক্যাম্পেইনের আওতায় মার্সেল ফ্রিজ, টিভি এবং এসি কিনে পুরস্কার পাচ্ছেন তাদেরকে নিয়েও প্রচার চালানো হচ্ছে। এতে করে গতবারের ন্যায় এবারও ডিজিটাল ক্যাম্পেইন ক্রেতাদের মাঝে অনেক সাড়া ফেলেছে। বিক্রিও অনেক বেড়েছে।

ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় গ্রীষ্মকালীন সময়ের জন্য মার্সেল ফ্রিজ ও এসিতে এবং বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষে মার্সেল টিভিতে এসব সুবিধা পাওয়া যাবে আগামী ৩০ জুন ২০১৮ পর্যন্ত।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ এপ্রিল ২০১৮/পলাশ/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন