ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৬ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

কামরাঙ্গীরচরে মার্সেল এসির প্রমোশনাল ওয়ার্কশপ

এম মাহফুজুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৭ ১:৪৬:০৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-১৪ ৫:৩০:১৫ পিএম
কর্মশালার পরে ফটোসেশনে ডিস্ট্রিবিউটর ও ডিলারদের সঙ্গে মার্সেল কর্মকর্তারা

২০২০ সালকে সামনে রেখে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে অনুষ্ঠিত হলো মার্সেল এয়ার কন্ডিশনার (এসি)-এর ‘সেলস প্রমোশনাল ওয়ার্কশপ’।

ঝাউলাহাটি চৌরাস্তায় মার্সেলের এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘মেসার্স নিউ সিটি ইলেকট্রনিক্স’ সম্প্রতি এ ওয়ার্কশপের আয়োজন করে।

আগামী বছর কীভাবে এসি বিক্রির নতুন টার্গেটে পৌঁছানো যায়, এসিতে বিক্রয় বৃদ্ধির কৌশলসমূহ এবং মার্সেল এসির বিষয়ে জনমনে কীভাবে অধিক সচেতনতা বাড়ানো যায় এসব নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয় ওয়ার্কশপে।

ওয়ার্কশপে কামরাঙ্গীরচরের মার্সেলের ২৫ জনেরও বেশি ডিস্ট্রিবিউটর ও ডিলার উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া মার্সেলের ডেপুটি ডিরেক্টর নূরুল ইসলাম রুবেল, ফার্স্ট সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর মিজানুর রহমান ও হারুনর রশীদ, অ‌্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল হক এবং ‘মেসার্স নিউ সিটি ইলেকট্রনিক্স’-এর স্বত্ত্বাধিকরী শামীম হোসেন ও মাসুম হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

শামীম হোসেন ও মাসুম হোসেনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ওই কর্মশালার মাধ্যমে ডিস্ট্রিবিউটর ও ডিলারদের সঙ্গে মতবিনিময় হয়।

ডেপুটি ডিরেক্টর নূরুল ইসলাম রুবেল বলেন, ‘কামরাঙ্গীরচর এসি বিক্রির একটি বড় বাজার। সেখানে আমাদের এসির অনেক ডিস্ট্রিবিউটর ও ডিলার রয়েছেন। ২০২০ সালে এসি বিক্রিতে আমাদের যে টার্গেট রয়েছে তা কীভাবে পূরণ করা যায়, কীভাবে মার্সেল এসির গুণাগুণ মানুষের মাঝে প্রচার করা যায়, মার্সেলের চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের নানা রকম পদ্ধতিসহ বিভিন্ন বিষয় কর্মশালায় আলোচনা করা হয়েছে।’

‘এই কর্মশালার মাধ্যমে ডিস্ট্রিবিউটর ও ডিলারদের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক আরো মজবুত হলো এবং একই সঙ্গে মার্সেল এসির বিক্রয় বৃদ্ধিতে ওয়ার্কশপটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমরা আশাবাদী,’ বলেন নূরুল ইসলাম রুবেল।

মার্সেল কর্মকর্তারা জানান, মার্সেলের ইনভার্টার প্রযুক্তির কম্প্রেসর ৬০ শতাংশ পর্যন্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয় করে। কম্প্রেসরে ব্যবহৃত হচ্ছে বিশ্ব স্বীকৃত সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব এইচএফসি গ্যাসমুক্ত আর৪১০এ এবং আর৩২ রেফ্রিজারেন্ট। রয়েছে টার্বোমুড ও আয়োনাইজার প্রযুক্তি, যা দ্রুত ঠাণ্ডা করার পাশাপাশি রুমের বাতাসকে ধুলা ময়লা ও ব্যাকটেরিয়া থেকে মুক্ত করে। কন্ডেন্সারে ব্যবহার করা হচ্ছে মরিচারোধক গোল্ডেন ফিন কালার প্রযুক্তি।

নানান সুবিধার পাশাপাশি বিদ্যুৎ বিল এবং নিশ্চিত ক্যাশব্যাকের সুবিধা দিচ্ছে মার্সেল। এর পাশাপাশি যেকোনো ব্র্যান্ডের পুরনো এসির বদলে ২৫ শতাংশ ছাড়ে মার্সেলের নতুন এসি কেনার সুযোগ রয়েছে। ৩৬ মাসের সহজ কিস্তি সুবিধা, জিরো ইন্টারেস্টে ১২ মাসের ইএমআই (ইক্যুয়াল মান্থলি ইনস্টলমেন্ট), ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি এবং টুইন-ফোল্ড ইনভার্টার এসির কম্প্রেসরে ১০ বছরের গ্যারান্টি দিচ্ছে মার্সেল। মার্সেলের প্রতিটি এসি আন্তর্জাতিক মানের টেস্টিং ল্যাব নাসদাত-ইউটিএস থেকে মান নিয়ন্ত্রণ ছাড়ের পর বাজারজাত করা হচ্ছে।

মার্সেলের রয়েছে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। এর আওতায় সারা দেশে রয়েছে ৭২টি সার্ভিস সেন্টার। দেশব্যাপী বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে নিয়োজিত রয়েছেন আড়াই হাজারের বেশি প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান।

 

ঢাকা/ইভা