ঢাকা, বুধবার, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ০১ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালকের শ্রদ্ধা

তাপস রায় : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-১৪ ৫:৪৯:১২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-১৪ ৫:৫৩:২৯ পিএম

ডেস্ক রিপোর্ট : জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের নবনিযুক্ত পরিচালক কবি ও প্রাবন্ধিক মিনার মনসুর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। আজ ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘরে বাঙালির মহান এই নেতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তিনি। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের উপ-পরিচালক সুহিতা সুলতানাসহ সংস্থার সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির নেতৃবৃন্দও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

শ্রদ্ধা জানানো শেষে মিনার মনসুর জাদুঘরে রক্ষিত পরিদর্শন খাতায় মন্তব্য লিপিবদ্ধ করেন। তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুই আমাদের অবিনাশী বাতিঘর। তিনি আমাদের একটি দেশ উপহার দিয়েছেন। দিয়েছেন বিশ্বদরবারে মাথা উঁচু করে চলার মতো আত্মপরিচয়। সর্বোপরি, রেখে গেছেন সোনার বাংলা গড়ার আকাশছোঁয়া স্বপ্ন। তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ও দূরদর্শী নেতৃত্বে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমরা যেন তাঁর অতুলনীয় আত্মত্যাগ এবং দেশ ও জনগণের প্রতি তাঁর অনন্য ভালোবাসার যথাযোগ্য প্রতিদান দিতে পারি।’ এর মাধ্যমে তিনি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর প্রাক্কালে তাঁর আন্তরিক প্রত্যাশা ও অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

গত ৭ মে মিনার মনসুরকে জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক পদে নিয়োগ দিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন প্রকাশিত হয়। মিনার মনসুর কবি হিসেবে অধিক সমাদৃত হলেও সম্পাদক, প্রকাশক ও সংগঠক হিসেবেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন পঁচাত্তর-পরবর্তীকালে। চরম প্রতিকূলতার মধ্যে ১৯৭৯ সালে প্রকাশ করেছেন ‘শেখ মুজিব একটি লাল গোলাপ’ নামে মাইলফলক গ্রন্থ। পঁচাত্তরের নজিরবিহীন নৃশংসতার পর বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এটিই ছিল গ্রন্থাকারে প্রকাশিত প্রথম স্মারক সংকলন। অবশ্য এর আগেই বঙ্গবন্ধুর তৃতীয় শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে ১৯৭৮ সালের ১৫ আগস্ট তার সম্পাদনায় প্রকাশিত হয় ‘এপিটাফ’-এর একটি বিশেষ সংখ্যা। তাঁর একাধিক কাব্যগ্রন্থ, জীবনীগ্রন্থ, গবেষণামূলক প্রবন্ধগ্রন্থ এবং সম্পাদিত গ্রন্থ রয়েছে।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ মে ২০১৯/তারা