ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিমানবন্দর পরিষ্কার করল ওয়ালটন-আর্মড পুলিশ

আহমদ নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-০৭ ৯:৪৯:১৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-০৮ ১২:২৮:৫৩ পিএম
ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিমানবন্দর পরিষ্কার করল ওয়ালটন-আর্মড পুলিশ
Walton E-plaza

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘রাখিব চারপাশ পরিষ্কার, করিব ডেঙ্গু প্রতিকার’এ স্লোগান নিয়ে যৌথ উদ্যোগে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালিয়েছে ওয়ালটন গ্রুপ ও এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বিমানবন্দরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে মশা নিধন ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হয়।  পুরো বিমানবন্দরে ফগার মেশিন দিয়ে মশার ওষুধ ছিটানো হয়।

দেশের সেরা ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিকস, অটোমোবাইল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমে অগ্রণী ভূমিকা রেখে আসছে। সম্প্রতি ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের সঙ্গে এ অভিযান চালানো হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন, ওয়ালটন গ্রুপের স্ট্যাটিক অ্যাড অ্যান্ড বিউটিফিকেশন বিভাগের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মো. শাহজাদা সেলিম, এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জিয়াউল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসিফ ইমাম প্রমুখ। এছাড়া, বিমানবন্দরে বিভিন্ন ইউনিটের কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীরাও উপস্থিত ছিলেন।

শাহজাদা সেলিম বলেন, ‘বিমানবন্দরে দেশি-বিদেশি প্রচুর মানুষ আসা-যাওয়া করেন। তাই এটি পরিষ্কার রাখা আমাদের সবার দায়িত্ব। সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে ওয়ালটন গ্রুপ এ উদ্যোগ নিয়েছে। ওয়ালটন শুধু ব্যবসা বা ব্যবসায়িক মনোভাব নয়, সমাজের মানুষের উন্নয়নে ও সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে কাজ করে। কারণ, ওয়ালটন গ্রুপ সামাজের সবার কাছে দায়বদ্ধ। এ দায়বদ্ধতা থেকে আমরা এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সঙ্গে বিমানবন্দর পরিষ্কার ও মশা নিধনে কাজ করছি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা বছরে তিন থেকে চার বার বিমানবন্দরে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালাই। এবার ডেঙ্গু মশার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় পরিচ্ছন্নতা অভিযান ও মশক নিধন অভিযান চালিয়েছি।’

ভবিষ্যতে ওয়ালটন এ ধরনের কাজ অব্যাহত রাখবে বলে জানান শাহজাদা সেলিম।

বিমানবন্দরে পরিচ্ছন্নতা ও মশক নিধনে ওয়ালটনের সম্পৃক্ততায় ধন্যবাদ জানিয়ে মো. আলমগীর হোসেন বলেন, এ ধরনের কাজে আমরা ওয়ালটনকে সব সময় পাই। ওয়ালটন সামাজিক দায়িত্ব থেকে সব সময় সহযোগিতা করে আসছে। যা আমাদের সব সময় অনুপ্রাণিত করে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ আগস্ট ২০১৯/নূর/রফিক

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge