ঢাকা, বুধবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৭ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

মোবাইল অ্যাপে জানালে ত্রাণ পৌঁছে দেবেন এমপি আসলাম

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-২২ ৯:৫২:২০ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-২২ ৯:৫২:২০ পিএম

করোনা পরিস্থিতিতে নিজের সংসদীয় আসনের জনগণের মধ্যে সুষ্ঠু ত্রাণ বিতরণের লক্ষ্যে মোবাইল অ্যাপ চালু করেছেন ঢাকা-১৪ আসনে সরকারদলীয় সংসদ সদস্য আসলামুল হক। যারা লাইনে দাঁড়িয়ে খাদ্য নিতে চান না, তারা মোবাইলে অ্যাপটি ইনস্টল করে সেখানে চাহিদার কথা জানালে পৌঁছে দেওয়া হবে প্রয়োজনীয় খাদ্য ও অন্যান্য সামগ্রী।

শুক্রবার বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে খাদ্য বিতরণ কর্মসূচী শুরু করেছেন তিনি।

এই অ্যাপের মাধ্যমে প্রতিটি পরিবার প্রতি সপ্তাহে একবার করে খাদ্য গ্রহনের অনুরোধ জানাতে পারবেন। সেই অনুরোধ ওয়ার্ড ভিত্তিক খাদ্য বিতরণ ডিপোর সমন্বয়কারীর কাছে চলে যাবে এবং সঙ্গেই সঙ্গেই খাদ্য সহায়তা পৌঁছে যাবে অনুরোধকারীর দরজায়।

সংসদ সদস্য আসলামুল হক রাইজিংবিডিকে বলেন, আপনারা নিশ্চয়ই অবগত আছেন, কোভিড-১৯ সংক্রমণের প্রথম ভাগেই ঢাকা-১৪ এর অন্তর্গত টোলারবাগ এলাকায় আঘাত হানে। এই প্রেক্ষিতে আমি ও আমার এলাকাবাসীর সমন্বয়ে চিকিৎসকগণের পরামর্শ অনুযায়ী ও বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে এই ভাইরাসকে সীমিত পর্যায়ে নিয়ে আসার চেষ্টা করেছি। এই উদ্যোগের সার্বিক চিত্র আপনারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখে থাকবেন।

তিনি আরও বলেন, এই পরিস্থিতিতে সারাদেশের মতোই আমার নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন স্থানেও তীব্র খাদ্য সংকট সৃষ্টি হয়। যেহেতু টোলারবাগনিবাসী অধিকাংশ মানুষ মধ্যবিত্ত, তাই তাদের লাইনে দাঁড়িয়ে কিংবা জনপ্রতিনিধিদের কাছে নাম দিয়ে খাদ্য সহায়তা গ্রহণে সংকোচ হতে পারে, এই কথা ভেবেই আমরা প্রযুক্তির আশ্রয় গ্রহন করেছি।

আসলামুল হক জানান, প্রাথমিকভাবে গত ২৭ মার্চ থেকে আমরা হটলাইনের মাধ্যমে খাদ্য বিতরণ কর্মসূচী শুরু করি। এই হটলাইনে ঠিকানা প্রদান করলেই আমার নিজ দায়িত্বে তাদের বাড়ি-বাড়ি খাদ্য পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করেছি। কিন্তু মাত্র তিনটি এজেন্ট হটলাইন দিয়ে এত বড় জনগোষ্ঠীর খাবার বিতরণ নিয়ন্ত্রণ করা কিছুটা দূরুহ। তাছাড়া অনেকেই একের অধিকবার ঠিকানা প্রদান করায় এই ঠিকানা সমন্বয় প্রক্রিয়া কিছুটা সময়সাপেক্ষ হয়ে পড়ে। দেখা যাচ্ছিল অনেকেই তিনটি হটলাইনেই ঠিকানা প্রেরণ করছেন। ফলে সমন্বয়ে বেশ বেগ পেতে হচ্ছিল। তারপরেও আমাদের চেষ্টা থেমে নেই। হটলাইনে আসা ঠিকানাগুলোতে আমাদের খাদ্য সহায়তা প্রদানে দু'দিন সময়ের প্রয়োজন হয়। যা মেনে নেয়া অনেকের জন্যই কষ্টসাধ্য।

'একারণেই আমরা প্রযুক্তির সহায়তায় খাদ্য বিতরণ প্রক্রিয়া আরো সহজ, দ্রুত, নির্ভুল এবং নিরবচ্ছিন্ন করার চেষ্টা করছি। ইতোমধ্যে আমরা খাদ্য সংক্রান্ত অনুরোধ নিরবচ্ছিন্নভাবে গ্রহনের জন্য মোবাইল অ্যাপ Connecting Aslamul Haque MP- তৈরীর কাজ সম্পন্ন করেছি। পরীক্ষামূলক ব্যবহার শেষে আমরা আজ (শুক্রবার) থেকেই এই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে খাদ্য বিতরণ কর্মসূচি শুরু করেছি।'

সেই সাথে হটলাইনের খাদ্য বিতরণ প্রক্রিয়াও চালু থাকবে।

মোবাইল অ্যাপের লিংক গুগল প্লে-স্টোরের লিঙ্ক https://play.google.com/store/apps/details?i d=com.spirolab.ahsan.spirodonation।


ঢাকা/হাসান/সাজেদ