ঢাকা, বুধবার, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ০৮ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

'ঈদের দিনও বাচ্চাদের আলু ভর্তা দিয়ে ভাত খাইয়েছি'

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৬ ১:৫০:২৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-২৬ ৪:৪৬:৫৬ পিএম
সন্তানদের কথা চিন্তা করে এই পরিস্থিতির মধ্যেও রাস্তায় নেমেছেন মোহাম্মদ আবদুল্লাহ (ছবি : রাইজিংবিডি)

জীবিকার তাগিদে রাজশাহী থেকে রাজধানীতে আসেন মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। রাজধানীর বিভিন্ন অলি গলি ঘুরে ঝালমুড়ি বিক্রি করেন তিনি। চার ছেলে-মেয়ে নিয়ে ভালোই যাচ্ছিল তার দিন। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে ব্যবসা বন্ধ।  তাই সন্তানদের নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তিনি।

মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে ঝালমুড়ি বিক্রি বন্ধ। বাসায় খাবার নেই। চার ছেলে-মেয়েকে নিয়ে খুব কষ্টে আছি। ঈদের দিনও বাচ্চাদের আলু ভর্তা দিয়ে ভাত খাইয়েছি। তাদের মুখে ভালো কিছু তুলে দিতে পারিনি।’

মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমার বাসা খিলগাঁও। আমি গত ৭ বছর ধরে রাজধানীর শাহাবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা, নিউমার্কেট, ধানমন্ডি এলাকায় ঝালমুড়ি বিক্রি করি। আগে গ্রামে একটা ভাতের হোটেলে কাজ করতাম। পরে ঢাকা এসে ঝালমুড়ি বিক্রি শুরু করি। ভালোই রেখেছিলো আল্লাহ। কিন্তু এখন খুব বিপদে আছি।’

তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে প্রয়োজন ছাড়া কেউ তেমন বের হচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয়, মার্কেট সব বন্ধ। ঝালমুড়িও তাই বিক্রি বন্ধ। কিন্তু বাসা ভাড়া, খাওয়ার খরচ তো থেমে নেই। কীভাবে যে সংসার চালাবো সেই চিন্তাই আছি।’

তিনি বলেন, ‘মঙ্গলবার (২৬ মে) সকাল থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে মাত্র ৪০ টাকা। বাচ্চাদের মুখে দু’মুঠো ভাত তুলে দিতে ঝুঁকি নিয়েই রাস্তায় নেমেছি। জানি না আল্লাহ কবে এই ভাইরাস দূর করবেন, আর কবে সব কিছু স্বাভাবিক হবে।’

 

ঢাকা/হাসিবুল/ইভা