ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭, ০৩ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

৩০ মে'র পর দোকান খুলতে চান ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৭ ৪:০০:২৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-২৭ ৬:৪৮:৫৩ পিএম

আগামী ৩০ মে'র সাধারণ ছুটির পর সরকারের অনুমতি পেলে শপিংমলসহ মার্কেট ও দোকানপাট খুলতে আগ্রহী ব্যবসায়ীরা। এসব ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সরকারের মনোভাবও জানতে চাইবে তারা।

বুধবার (২৭ মে) বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিনের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

হেলাল উদ্দিন বলেন, মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে গত ২ মাস ধরে সব ধরনের মার্কেট, শপিংমল বন্ধ ছিল। ঈদের আগে কিছু সংখ্যক মার্কেট সীমিত পরিসরে খোলা রাখা হয়েছিল। কিন্তু ক্রেতাদের সাড়া পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, সরকারের অনুমতি নিয়ে আমরা ঈদের আগে যে মার্কেট খুলেছি সেটা কিন্তু ঈদ মার্কেটের জন্য না। একেবারেই নিতান্ত প্রয়োজনে খুলেছি। যারা ক্রেতা সাধারণ এসেছে তারাও নিতান্ত প্রয়োজনে এসেছে। ঈদের আগে কিছু টাকা আমাদের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা রোজগার করতে পেরেছে।

তিনি আরও বলেন, সরকার ঈদুল ফিতরের ছুটিসহ আগামী ৩০ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। এরপর সরকার যদি মার্কেট খোলার অনুমতি দেয় তাহলে আমরা খুলবো। আর বন্ধ রাখতে বললে বন্ধ রাখবো। আমরা এ ব্যাপারে সরকারের মনোভাব জানতে চাইবো।

এখনো ঝুঁকি রয়েছে উল্লেখ করে হেলাল উদ্দিন বলেন, আমাদের দেশে এখন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ যেভাবে ছড়িয়ে পড়ছে তাতে এখন সবাই ঝুঁকির মধ্যে রয়েছি। যেভাবে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, সরকার যদি মনে করে আরও কঠোরভাবে লকডাউনে যাবে, যেতেইতো পারে। আগে তো মানুষ বাঁচাতে হবে। তারপরেই না হয় ব্যবসা।

গত ৪ মে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়। সেই চিঠিতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে দোকান ও শপিংমল ১০ মে থেকে খোলার কথা উল্লেখ করা হয়। তবে বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে বলা হয় চিঠিতে।

দেশে ২৭ মে পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৫৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে ৩৮ হাজার ২৯২ জন।


হাসিবুল/এসএম