ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ১০ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

শ্বাসকষ্ট তাই মাকে রাস্তায় ফেলে গেলো ছেলে

মেডিকেল প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-০৭ ৬:১৫:৩৬ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-০৭ ৬:১৫:৩৬ এএম

তিন দিন ধরে রাস্তায় পড়েছিলেন পঞ্চাশোর্ধ্ব মনোয়ারা বেগম। সেখানে তিনি বৃষ্টিতে ভিজে ঠাণ্ডায় কেঁপেছেন, আবার প্রখর রোদে তৃষ্ণায় কষ্ট পেয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার (৪ জুন) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নতুন ভবনের সামনে মনোয়ারা বেগমকে ফেলে যায় তার ছেলে মোজাম্মেল হক। কারণ, হঠাৎ মনোয়ারার শ্বাসকষ্ট দেখা দিয়েছে।

রাজধানীর মিরপুর কমার্স কলেজের পাশের বস্তিতে সালামের ভাড়া বাসায় থাকতো মনোয়ারা বেগম। মনোয়ারা করোনা আক্রান্ত হয়েছে সন্দেহে তাকে বস্তি থেকে অন্য কোথাও নিয়ে বলেন সালাম। আর তাতেই মাকে রাস্তায় ফেলে রেখে যায় মোজাম্মেল।

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা দেখতে পেয়ে শনিবার (৬ জুন) বিকেলে মনোয়ারাকে উদ্ধার করে হাসপাতালের নতুন ভবনের করোনা ইউনিটে ভর্তি করেন।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী ইনচার্জ এএসআই  আব্দুল খান জানান, করোনা আক্রান্ত সন্দেহে মনোয়ারা বেগমকে তার ছেলে ফেলে রেখে গেছে। যখন তাকে উদ্ধার করা হয়, তখনও তার মারাত্মক শ্বাসকষ্ট ছিলো।

তিনি বলেন, ‘‘তিন দিন ধরে মনোয়ারা বেগম ঝড়-বৃষ্টিতে ভিজে এখানে পড়ে ছিল বলে অ্যাম্বুলেন্স চালকরা আমাকে জানিয়েছেন।’’

নতুন ভবনের করোনা ইউনিটে দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, মনোয়ারা বেগমের শারীরিক অবস্থা ভালো না। করোনার পাশাপাশি অন্যান্য পরীক্ষা করা হচ্ছে এবং চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

পুলিশ জানায়, মনোয়ারা বেগমের স্বামীর নাম শাহজাহান মিয়া। গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার জয়রামপুর গ্রামে।

 

ঢাকা/বুলবুল/নূর/বকুল