ঢাকা, সোমবার, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

রনির ফিফটির পর শফিউল-তাইজুলের আঘাত

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-১০ ৫:৫৭:২৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-১০ ৬:২৬:২৩ পিএম

রনি তালুকদারের ফিফটিতে ভালো ভিত পেয়েছিল ঢাকা বিভাগ। তবে শফিউল ইসলাম ও তাইজুল ইসলামের বোলিংয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে রাজশাহী বিভাগ।

ওয়ালটন ২১তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম দিন বৃষ্টির কবলে পড়েছে। বৃহস্পতিবার ফতুল্লায় প্রথম স্তরে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী ও ঢাকার ম্যাচে খেলা হয়েছে ৫১.৫ ওভার। তাতে ঢাকার রান ৭ উইকেটে ১৪৩।

খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে বৃষ্টি আর ভেজা আউটফিল্ডের কারণে খেলা শুরুই হয়েছিল দুপুর পৌনে একটার দিকে। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সাবধানী শুরু করেছিলেন দুই ওপেনার আব্দুল মজিদ ও রনি।

মজিদ উইকেটে থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি। দ্বাদশ ওভারে ইনিংসে প্রথমবারের মতো আক্রমণে এসেই মজিদকে ফিরিয়ে ২৯ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন তাইজুল। বাঁহাতি স্পিনারের বলে ফরহাদ রেজাকে ক্যাচ দেওয়ার আগে মজিদ ৪১ বলে করেন ১০ রান।  

দ্বিতীয় উইকেটে প্রতিরোধ গড়েন রনি ও জয়রাজ শেখ। চা বিরতির আগে আর কোনো বিপদ হতে দেননি এই দুজন। বিরতির পর রনি পেয়ে যান ফিফটি, ৯৪ বলে। একশ পেরিয়ে ঢাকাও তখন পেয়ে গেছে শক্ত ভিত।

জয়রাজকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলে ৮০ রানের দ্বিতীয় উইকেট জুটি ভাঙেন তাইজুল। ৭৩ বলে ৩ চারে জয়রাজ করেন ৩৫ রান। এরপর রনি ৬৩ রান করে ফিরতেই ধস নামে ঢাকার ইনিংসে। শফিউল ইসলামের বলে উইকেটকিপারকে ক্যাচ দেওয়ার আগে ১১৪ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ইনিংসটি সাজান ডানহাতি ওপেনার।

শফিউল এরপর ফেরান রকিবুল হাসান (৮) আর মোহাম্মদ শাকিলকেও (৩)। তাইজুলের শিকার শুভাগত হোম (১) ও শাহাদাত হোসেন (০)। একটা সময় ২ উইকেটে ১২১ থেকে ঢাকার সংগ্রহ তখন ৭ উইকেটে ১৩৪!

দিনের শেষ দুই ওভার কোনোমতে কাটিয়ে দেন তাইবুর রহমান ও নাজমুল ইসলাম  অপু। তাইবুর ১২ ও নাজমুল শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

প্রথম দিনে তাইজুল ২০.৫ ওভারে ৫৫ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। শফিউল ১৭ ওভারে ৪০ রানে ৩ উইকেট। শফিকুল ইসলাম ৮ ওভারে ২৪ ও ফরহাদ রেজা ৬ ওভারে ১৫ রানে উইকেটশূন্য ছিলেন।


ঢাকা/পরাগ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন