ঢাকা, শুক্রবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

এক নজরে একাদশ সংসদ নির্বাচন

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-২৮ ৮:১৪:৪৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-২৯ ১১:৩০:১১ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : সব নজর এখন রোববারের ভোটে। ১০ কোটি ৪২ লাখেরও বেশি ভোটেরর এ নির্বাচনে লড়াইয়ে রয়েছেন ১৮৬১ জন। এর মধ্যে রাজনৈতিক দলের প্রার্থী ১৭৩৩ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ১২৮ জন।

কঠোর নিরাপত্তারর মধ্যে একাদশ সংসদ নির্বাচন হতে যাচ্ছে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোটের জন্য সব আয়োজন শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন।

১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটারের এ নির্বাচনে নিবন্ধিত সবগুলো দলই অংশ নিচ্ছে; রেকর্ডসংখ্যক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ৭ লাখের মতো আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্য, ৭ লাখের মতো ভোটগ্রহণে নিয়োজিত কর্মকর্তা এবং কেন্দ্রায় ও স্থানীয়ভাবে সাংবাদিক, পর্যবেক্ষকসহ  প্রায় ১ লাখের মতো লোকবল মিলিয়ে ১৫ লাখ লোক নির্বাচনী কাজে সম্পৃক্ত রয়েছে।

৩০ ডিসেম্বর ২৯৯ আসনে ভোট হবে। এক প্রার্থীর মৃত্যুতে গাইবান্ধা-৩ আসনে ভোট হবে ২৭ জানুয়ারি।

৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণা করেন সিইসি কে এম নূরুল হুদা। ১২ নভেম্বর পুনতফসিল করা হয়।

এক নজরে একাদশ সংসদ নির্বাচন
রিটার্নিং অফিসার ৬৬ জন ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার ৫৮২ জন। ভোটকেন্দ্র ৪০,১৮৩। ভোটকক্ষ ২,০৭,৩১২, ভোটার সংখ্যা ১০, ৪২, ৩৮, ৬৭৭ জন। পুরুষ ৫,২৫,৭২,৩৬৫, মহিলা ৫,১৬,৬৬,৩১২।

রাজনৈতিক দল ৩৯, প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী-২৯৯ নির্বাচনী এলাকায় ১৮৬১ জন। রাজণৈতিক দলের প্রার্থী ১৭৩৩ জন। স্বতন্ত্র প্রার্থী ১২৮ জন।

আইন শৃঙ্খলাবাহিনী
ভোটেকেন্দ্রে নিয়োজিত ফোর্স এর সংখ্যা প্রায় ৬,০৮,০০০। এর মধ্যে পুলিশ ১,২১,০০০; আনসার ৪,৪৬,০০০; গ্রাম পুলিশ ৪১,০০০, সেনাবাহিনী (প্রতি প্লাটুনে ৩০ জন) : ৪১৪ প্লাটুন (৩৮৯ উপজেলায়)। নৌবাহিনী (প্রতি প্লাটুনে ৩০ জন): ৪৮ প্লাটুন (১৮ উপলোয়)। কোস্টগার্ড (প্রতি প্লাটুনে ৩০ জন): ৪২ প্লাটুন (১২ উপলোয়)। বিজিবি (প্রতি প্লাটুনে ৩০ জন):  ৯৮৩ প্লাটুন, র‌্যাব (প্রতি প্লাটুনে ৩০ জন): ৬০০ প্লাটুন, মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্সের সংখ্যা র‌্যাবসহ প্রায় ২০০ প্লাটুন (প্রায় ৬৫ হাজার জন)।

তাছাড়া সারা দেশে জেলা ও মেট্রোপলিটন পুলিশের টহল দল নিয়োজিত রয়েছে।

নির্বাহী ও বিচারিক হাকিম
নির্বাহী হাকিম ১৩২৮ জন। (আচরণবিধিতে ৬৫২ জন; আইন শৃঙ্খলা ফোর্সের নেতৃত্বে ৬৭৬ জন)।
বিচারিক হাকিম ৬৪০ জন।
নির্বাচনী তদন্ত কমিটির: ১২২টি (২৪৪ জন)।

ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা
প্রিজাইডিং অফিসার: ৪০,১৮৩ জন।
সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার: ২,০৭,৩১২ জন।
পোলিং অফিসার: ৪,১৪,৬২৪ জন।ও

পর্যবেক্ষক
দেশি: ৮১টি প্রতিষ্ঠানের ২৫,৯০০ জন।
বিদেশি পর্যবেক্ষক: ৩৮ জন (ফেমবোসা, এএইএ, ওআইসি ও কমনওয়েল্থ থেকে আমন্ত্রিত)। কূটনৈতিক বিদেশি মিশনের কর্মকর্তা: ৬৪ জন। দূতাবাস ও বিদেশি সংস্থায় কর্মরত বাংলাদেশি: ৬১ জন।

ইভিএম
৬টি আসনে ভোটর ২১ লাখ ২৪ হাজার ৫৫৪ জন; কেন্দ্র ৮৪৫টি, ভোটকক্ষ ৫,০৪৫টি। প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ৪৮ জন।
রংপুর-৩ ভোটার ৪,৪১,৬৭১ জন।
খুলনা-২ ভোটার ২,৯৪,১১৬ জন।
সাতক্ষীরা-২ ভোটার ৩,৫৬,২৪৬ জন।
ঢাকা-৬ ভোটার ২,৬৯,৩১৫ জন।
ঢাকা-১৩ ভোটার ৩,৭২,৭৭৫ জন।
চট্টগ্রাম ৯ ভোটার ৩,৯০,৪৩১ জন।

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৮ ডিসেম্বর ২০১৮/হাসিবুল/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন