ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘খালেদাকে বিনা চি‌কিৎসায় মেরে ফেলার মতো অমান‌বিক নয় আ.লীগ’

রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-২৪ ৩:২০:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-২৬ ৩:২০:২৪ পিএম
 ‘খালেদাকে বিনা চি‌কিৎসায় মেরে ফেলার মতো অমান‌বিক নয় আ.লীগ’
Walton E-plaza

জ্যেষ্ঠ প্র‌তি‌বেদক : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলার মতো অমানবিক আওয়ামী লীগ সরকার নয় বলে মন্তব্য করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার দুপুরে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর এক বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

সরকার খালেদা জিয়াকে চি‌কিৎসা না দি‌য়ে মেরে ফেলতে চাইছে ব‌লে বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্যের প্রতি‌ক্রিয়া জানতে চাইলে কাদের বলেন, ‘আমি এতটুকু বলতে চাই, শেখ হাসিনার সরকার অমানবিক নয়।  বেগম জিয়া আইনগত কারণে হয়ত কারাগারে রয়েছেন।  কিন্তু তাকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলতে হবে এ ধরনের  অমানবিক ও নিষ্ঠুর কাজ সরকার করবে না।’

ভারতে নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন বিজেপির বিশাল জয়ের পর বাংলাদেশের সঙ্গে তিস্তা চুক্তিসহ অন্যান্য অমীমাংসিত বিষয়গুলোর সমাধান হবে এমন আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে ভারতে গঠিত হতে যাওয়া এবারের মোদি সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক কেমন হবে, এমন এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তিনি এবার ঐতিহাসিক বিজয় অর্জন করেছেন। তিনি এবার স্পেকুলেশনকেও ছাড়িয়ে গিয়েছেন। আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে টুইট করেছে, অভিনন্দন বার্তাও পাঠিয়েছেন।’

‘গত মোদি সরকারের আমলে আমাদের সঙ্গে অনেক অমীমাংসিত সমস্যা সমাধান হয়েছে। এগুলো গত মোদি সরকারের সাহসিকতা ও বিচক্ষণতারই প্রমাণ। দুই  দেশের সীমান্ত সমস্যার সমাধান হয়েছে। এ ধরনের কাজ যখন সম্পন্ন হয়ে গেছে এবং সমাধান প্রচেষ্টা খুব দ্রুত হয়েছে, সেজন্য আমরা আশা করি এবার নরেন্দ্র মোদি তার দেশের জনগণের আস্থা আরো বেশি করে পেয়েছে। আমরা আশা করি আমাদের সঙ্গে অমীমাংসিত তিস্তা যুক্তিসহ অমীমাংসিত বিষয়গুলোর সমাধানে যে প্রক্রিয়াটা আছে সে প্রক্রিয়াটা আরো দ্রুত হবে।।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় মুজিব বর্ষ পালন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সফর সম্পর্কে আলোচনা হয়েছে। ঈদের পরে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম আরও জোরদার করা হবে সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।’

‘মুজিব বর্ষের কর্মসূচি মোটাদাগে পালনের কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে আর আমাদের জাতীয় সম্মেলন সারা দেশে তৃণমূল পর্যন্ত কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। এসব বিষয়ে আমাদের দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।’

দলের কাউন্সিল ঘিরে সুবিধাবাদীরা প্রবেশ করছে কি না, এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এসব সুবিধাবাদীর অনুপ্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। সুযোগসন্ধানীরা চিরদিন এটা করে থাকে। আমাদের দলের সিদ্ধান্ত পরিষ্কার। পরীক্ষিত ত্যাগী নেতা-কর্মীদের সংগঠন তৃণমূল থেকে নেতৃত্বে আনা হবে। কোনোখানে কোনো সুযোগ সন্ধানী স্থান হবে না।’

আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বি এম মোজাম্মেল হক, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, এনামুল হক শামীম, আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, শিল্পবিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সাত্তার, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, বনবিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, উপদপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এবং কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, মারুফা আক্তার পপি।



রাইজিংবি‌ডি/ঢাকা/২৪ মে ২০১৯/‌রেজ‌া/সাইফুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       
Marcel Fridge