ঢাকা, রবিবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৫ ১১:০৫:৩৭ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-১৫ ৬:০৮:৫৫ পিএম
এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যে সোমবার ১০টা ৫২ মিনিটে বিপুল সংখ্যক মুসল্লির উপস্থিতিতে তার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম জানাজায় উপস্থিত ছিলেন।  এ ছাড়া সংসদ সদস্য, মন্ত্রী, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাসহ পেশাজীবী মানুষ জানাজায় অংশ নেন। উপস্থিত ছিলেন এরশাদের ছোট ভাই জিএম কাদের, মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাসহ দলের নেতা-কর্মীরাও।

জানাজার আগে রওশন এরশাদ স্বামীর জন্য সবার কাছে দোয়া ও ক্ষমা চান। জিএম কাদেরও তার ভাইয়ের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চান।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ তার সামরিক সচিব এরশাদের কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। স্পিকারের পক্ষে ডেপুটি স্পিকার ও চিফ হুইপ ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ ছাড়া বিরোধী দলের পক্ষে রওশন এরশাদ শ্রদ্ধা জানান। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধা জানানো হয়। জানাজার পূর্বে এরশাদের জীবনী পাঠ করেন দলের মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘এরশাদ একজন ভদ্র ও মার্জিত মানুষ ছিলেন। তিনি সবার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতেন। তার শূন্যতা অপূরণীয়।’

সংসদের দক্ষিণ প্লাজা থেকে কাকরাইল জাতীয় পার্টির অফিসে নেওয়া হবে এরশাদের মরদেহ। সেখানে দলের নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ তাকে শ্রদ্ধা জানাবেন।

বাদ আসর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে তার তৃতীয় জানাজার নামাজ। রাতে সিএমএইচের হিমঘরে তার মরদেহ রাখা হবে।

মঙ্গলবার হেলিকপ্টারে সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদের মরদেহ নেওয়া হবে রংপুরে। রংপুরে জানাজা শেষে ঢাকায় সামরিক কবরস্থানে তাকে দাফন করার কথা রয়েছে।

এর আগে রোববার বাদ জোহর ঢাকা সেনানিবাসের কেন্দ্রীয় মসজিদে এরশাদের প্রথম জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। রোববার রাতে সিএমএইচ এর হিমঘরে রাখা হয় এরশাদের মরদেহ।

রোববার সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা সেনানিবাসে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। তিনি মাইডোলিসপ্লাস্টিক সিনড্রোমে আক্রান্ত ছিলেন, রক্তে হিমোগ্লোবিনের স্বল্পতায়ও ভুগছিলেন।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ জুলাই ২০১৯/নঈমুদ্দীন/ইভা

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন