ঢাকা, সোমবার, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘দলীয় পরিচয়ে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করলে কঠোর পদক্ষেপ’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-০৮ ২:০০:৫২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-০৮ ২:৪০:৪৪ পিএম

আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মী দুর্নীতি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকলে কঠোর সাংগঠনিক ও আইনি পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দলীয় পরিচয়ে অপকর্ম, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত থাকলে কাউকে ছাড় দেয়া হয় না, ভবিষ্যতেও হবে না। আওয়ামী আগাছা-পরগাছা ঢুকেছে। এই বিষয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর অবস্থান নিয়েছেন।

আবরার হত্যকাণ্ড নিয়ে বিএনপির নেতাদের বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিএনপি সরকারের সময়ে এ ধরনের অনেক ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। বুয়েটের সনি হত্যাকাণ্ডে কী হয়েছে? বর্তমান প্রশাসন অত্যন্ত তৎপর। আবরার হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের নয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জড়িতদের ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

‘আমাদের দলের মেয়র পর্যন্ত কারাগারে আছেন। আমাদের সংসদ সদস্য কারাগারে আছেন। আরো অনেকের মামলা বিচারাধীন। অনেক মন্ত্রী-সংসদ সদস্যকে দুদক জিজ্ঞাসাবাদ করছে। আমরা যে ব্যবস্থা নিচ্ছি, তার প্রমাণ হচ্ছে এসব ঘটনা, বলেন আওয়ামী‌ লীগের সাধারণ সম্পাদক।

আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ দায় নেবে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘পাঁচ মিনিটের মধ্যে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একদিনেই তো আর বিচার করা যায় না।’

বুয়েটে ছাত্রহত্যা নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ হচ্ছে, এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আন্দোলনের কোথাও ছোট ঢেউও নেই। ছাত্রলীগের বা যুবলীগের গুটিকয়েক নেতাকর্মী অপরাধ করলে সেটার জন্য গোটা সংগঠন দায়ী নয়। দলের পরিচয়ে কেউ অপকর্ম করলে ছাড় পাবে না।’

জামায়াত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হবে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের তালিকায় জামায়াত নেই। জামায়াত-শিবির নিষিদ্ধের বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন। এটা আদালতের বিষয়।’

বিচারহীনতার কারণে বারবার ছাত্রহত্যার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিচারহীনতা নেই, প্রতিটি ঘটনার বিচার হয়েছে। চাঁদের ছোট কালিমা এর উজ্জ্বলতা ম্লান করতে পারে না।’

ছাত্রলীগের সাবেক এই নেতা বলেন, ছাত্রলীগ শুধু খারাপ কাজ করছে না, অনেক ভালো কাজও করছে। গুটিকয়েক সদস্যের অপকর্মের দায়ে সমস্ত ছাত্রলীগকে দোষ দেয়া যাবে না। এ দেশের ইতিহাসে ছাত্রলীগের অবদান রয়েছে।

শুধু সরকারের বিরোধিতা করা বিএনপির রাজনীতির প্রধান অনুষঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে, মন্তব্য করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘মির্জা ফখরুলেরা কখন যে কী বলে, তা বলা মুশকিল। তারা রাজনীতির বেপরোয়া চালক। বেপরোয়া চালকেরা কখন দুর্ঘটনা ঘটায়, তা নিয়ে আমরা দুশ্চিন্তায় আছি। এরা বিরোধিতার জন্যই শুধু বিরোধিতা করে।’

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, মাহবুবুল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বিপ্লব বড়ুয়া, সাবেক খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিতি ছিলেন।


ঢাকা/পারভেজ/রফিক

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন