ঢাকা, শনিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

সিটি করপোরেশনের দক্ষতা বৃদ্ধিতে জাপানে লার্নিং প্রোগ্রাম

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৭-১০-১১ ১২:০০:৫৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১০-১১ ১২:০০:৫৬ পিএম
সিটি করপোরেশনের দক্ষতা বৃদ্ধিতে জাপানে লার্নিং প্রোগ্রাম
জাপানের লার্নিং অ্যান্ড ডায়ালগ প্রোগ্রামে অংশগ্রহণকারী কর্মকর্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের সিটি করপোরেশনগুলোর কর্মকর্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে জাপানে অনুষ্ঠিত হলো ‘লার্নিং অ্যান্ড ডায়ালগ প্রোগ্রাম’।

জাপান দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব (প্রেস) মুহা. শিপলু জামান বুধবার রাইজিংবিডিকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

বাংলাদেশের সিটি করপোরেশনসমূহ বিশেষ করে নবগঠিত নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, রংপুর ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রশাসনিক দক্ষতা ও সেবার মান বৃদ্ধিতে জাপান সর্বাত্মক সহযোগিতা করছে। সেই ধারাবাহিকতায় গত ৬ থেকে ১৬ সেপ্টেম্বর টোকিওতে জাইকার অর্থায়নে ‘ক্যাপাসিটি ডেভেলপমেন্ট অব সিটি করপোরেশন ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় প্রথম লার্নিং অ্যান্ড ডায়ালগ প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়।

সিটি করপোরেশনে সুশাসন নিশ্চিতকরণে নীতি নির্ধারণ ও ব্যবস্থাপনা, প্রশাসনিক উন্নয়নে পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা, কর নির্ধারণ ও সংগ্রহ পদ্ধতির উন্নয়ন সাধন এবং বাজেট ব্যবস্থাপনার আধুনিকায়ন এই প্রকল্পের অন্যতম মূল লক্ষ্য। পাঁচ বছর মেয়াদি প্রকল্পটিতে মোট সাতটি লার্নিং অ্যান্ড ডায়ালগ প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে।

১০ দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত প্রথম লার্নিং অ্যান্ড ডায়ালগ প্রোগ্রামে বাংলাদেশ থেকে আসা মোট ১২ জন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন সিটি করপোরেশনের কাউন্সেলরগণ অংশগ্রহণ করেন। প্রোগ্রামের প্রথম পর্বে, টোকিওর মিইজি বিশ্ববিদ্যালয়ে জাপানের স্থানীয় সরকার সম্পর্কে পাঠদান, আলোচনা ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করা হয়। সেখানে লেকচার প্রদান করেন প্রফেসর কিমুরা ও প্রফেসর ইয়ামাসিতা।

দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল হিরোশিমা শহরের বিভিন্ন ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক স্থানসমূহ পরিদর্শন করেন। এ ছাড়া হিরোশিমার ভূমি ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে তাদের সম্যক ধারণা ও পাঠ দেওয়া হয়।

শেষ পর্যায়ে প্রতিনিধি দলের সদস্যগণ টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস পরিদর্শন করেন, সেখানে তারা বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করেন। রাষ্ট্রদূত তাদের শুভেচ্ছা জানান এবং এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে অর্জিত জ্ঞান বাংলাদেশের উন্নয়নে কাজে লাগানোর আহ্বান জানান।

এ সময় দূতাবাসের ইকোনমিক মিনিস্টার ড. সাহিদা আক্তারসহ দূতাবাসের অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, প্রকল্পের পরবর্তী ‘লার্নিং অ্যান্ড ডায়ালগ প্রোগ্রাম’ আগামী বছর ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে।

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ অক্টোবর ২০১৭/হাসান/সাইফুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন