ঢাকা, সোমবার, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

স্বাস্থ্য খাতে সাফল্য অনেক

আরিফ সাওন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-২১ ৯:৫৯:২২ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-২২ ১১:১৭:৪৯ এএম
স্বাস্থ্য খাতে সাফল্য অনেক
Walton E-plaza

আরিফ সাওন : ২০১৮। স্বাস্থ্যখাতে সাফল্যের বছর। সরকারের অনেক ইতিবাচক দিক রয়েছে। রোগীদের সেবা নিশ্চিত করতে এ বছর ৫ হাজারেরও বেশি নার্স নিয়োগ দেয় সরকার। এ ছাড়া, দগ্ধ রোগীদের জন্য নির্মাণ করা হয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিটিউট, যেটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট।

এত এত সাফল্য থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশ সরকারের আরো কিছু কাজ মানুষের মনে নাড়া দিয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সাতক্ষীরার মুক্তামণির চিকিৎসা। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশে এই ছোট মেয়েটিকে সুস্থ করার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। কিন্ত না, তাকে বাঁচানো যায়নি। সে চলে গেছে।

অসংক্রামক রোগ নিরূপণে গবেষণা চুক্তি :
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) লন্ডনের ক্যামব্রিজ ইউনিভার্সিটিসহ বিখ্যাত সাত শিক্ষা, চিকিৎসা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের যৌথ উদ্যোগে পরিবেশের সাথে অসংক্রামক রোগ নিরূপণের জন্য গবেষণা কার্যক্রমের যাত্রা শুরু হয়। ২৩ জানুয়ারি রাজধানীর হোটেল রেডিসন ব্লুতে সহযোগিতামূলক চুক্তি (মেমোরেনডাম অফ কোলাবরেশন) স্বাক্ষর হয়।

অজানা রোগে আক্রান্ত আব্বাসের চিকিৎসা :
অজানা রোগে আক্রান্ত মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ১৩ বছরের কিশোর আব্বাস শেখের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়ে চিকিৎসা শুরু করে ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড হসপিটাল লিমিটেড। ২১ ফেব্রুয়ারি বিকেল সাড়ে ৩টায় আব্বাস শেখকে এ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিএসএমএমইউতে প্রথম নারী উপ-উপাচার্য :
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম নারী উপ-উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান। এর আগে অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান বিএসএমএমইউতে শিশু বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমানকে ৬ মার্চ রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর তিন বছরের জন্য নিয়োগ দেন।

শিশু-কিশোর প্যালিয়েটিভ ওয়ার্ড চালু :
ক্যান্সারসহ বিভিন্ন নিরাময় অযোগ্য রোগে আক্রান্ত শিশু-কিশোর-কিশোরীদের যন্ত্রণা লাঘবে অনন্য সাধারণ উদ্যোগ নেয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যালিয়েটিভ বিভাগ। এ বিভাগের উদ্যোগে দেশে প্রথমবারের মতো চালু হয় শিশু-কিশোর প্যালিয়েটিভ কেয়ার ওয়ার্ড। ১৫ মার্চ এ ওয়ার্ডটি চালু করা হয়।

নাক ডাকা রোগীদের সুখবর :
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সি-ব্লকের সপ্তম তলায় ‘প্রশান্তির ঘুম’ ল্যাবের উদ্বোধন করা হয়েছে। এই ল্যাবটি রোগীদের পরীক্ষার জন্য রাতে খোলা থাকে এবং ঘুমের মধ্যেই পরীক্ষা করা হয়। ১৫ মে এই ল্যাবটির উদ্বোধন করা হয়।

সুখী পরিবার চালু :
পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরে ‘সুখী পরিবার’ নামে একটি কল সেন্টার (১৬৭৬৭) স্থাপন করে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়। দেশের যেকোনো মোবাইলফোন থেকে এই নম্বরে কল দিলেই পরিবার পরিকল্পনা, মা-শিশু স্বাস্থ্য, কৈশোরকালীন স্বাস্থ্য বিষয়ে সার্বক্ষণিক পরামর্শ পাওয়া যাবে। এ ছাড়া, জরুরি প্রসূতি সেবা ও বাল্যবিয়ে রোধের ক্ষেত্রেও কল সেন্টারটি থেকে সহায়তা পাওয়া যায়। ১৭ জুলাই স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সেন্টারটির উদ্বোধন করেন।

২৫৫ শ্রবণ প্রতিবন্ধীর কক্লিয়ার ইমপ্লান্ট স্থাপন :
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ডেভেলপমেন্ট অব কক্লিয়ার ইমপ্লান্ট প্রোগ্রাম ইন বিএসএমএমইউ’ কর্মসূচির আওতায় ২০১৮ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২৫৫ জন শ্রবণ প্রতিবন্ধীর মাঝে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সফলভাবে কক্লিয়ার ইমপ্লান্ট ডিভাইস স্থাপন করা হয়েছে। কক্লিয়ার ইমপ্লান্ট ডিভাইস জটিল অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে রোগীর কানে স্থাপন করা হয় এবং এর মাধ্যমে শ্রবণ প্রতিবন্ধীরা কানে শুনতে পারে ও পৃথিবীটা তাদের কাছে হয়ে ওঠে শব্দময়। এটি একটি ব্যয়বহুল চিকিৎসা, শুধু কানে স্থাপনের কক্লিয়ার ইমপ্ল্যান্ট ডিভাইসের মূল্য ১০ লক্ষাধিক টাকা। বাংলাদেশ সরকারের সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এই ব্যয়বহুল ডিভাইস বিনামূল্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়কে সরবরাহ করে যাচ্ছে।

শেখ হাসিনা ন্যাশনাল বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট উদ্বোধন:
বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২৪ অক্টোবর সকালে তিনি এ ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন করেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) ও হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত এ প্রতিষ্ঠানটির নামকরণ করা হয়েছে ‘শেখ হাসিনা ন্যাশনাল বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট’। বার্ন ইনস্টিটিউটটি স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে বলে মনে করছেন সংশ্নিষ্টরা। দগ্ধ রোগীর পাশাপাশি চিকিৎসক, নার্সদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করবে এ প্রতিষ্ঠানটি। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঁচটি শয্যা নিয়ে বার্ন ইউনিটের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এর পর ধাপে ধাপে তা ১০০ শয্যায় রূপান্তরিত হয়। এখন এটি ৫০০ শয্যার ইনস্টিটিউটে রূপান্তরিত হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বার্ন চিকিৎসার স্বপ্নদ্রষ্টা ছিলেন। তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে সেই স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিল।

নার্স নিয়োগ :
বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে এ বছর ৫ হাজার ৯২ জন সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগ পায়, যা বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্বিতীয় বৃহত্তম সংখ্যক নার্স নিয়োগের ঘটনা। ৮ নভেম্বর তারা চাকরিতে যোগ দেন।

অনেক সাফল্যের মাঝেও ২০১৮ সালে কয়েকটি ঘটনা ছিল খুবই বেদনাবিধুর। এর মধ্যে মুক্তামণি, রাফা ও রফিক শিকদারের মায়ের চলে যাওয়া। সবাইকেই চলে যেতে হবে, সেই নিয়মেই এরা চলে গেছেন। কিন্তু তাদের চলে যাওয়া অনেকেরই মানতে কষ্ট হয়েছে, অনেকেই অন্তরে আঘাত পেয়েছেন, অনেকেই কেঁদেছেন।

মারা গেল মুক্তামণি :
রক্তনালীর টিউমারে আক্রান্ত সাতক্ষীরার মুক্তামণি সকলকে কাঁদিয়ে পরোপারে পাড়ি জমায়। ২৩ মে সকাল ৮টার দিকে সদর উপজেলার কামারবাসা গ্রামের নিজ বাড়িতে সে মারা যায়। মুক্তামনির বাবা নাম ইব্রাহীম হোসেন। এ বছরে সবচেয়ে আলোচিত এই মুক্তামণি, যাকে সুস্থ করার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের চেষ্টা চালানো হয়েছে।

প্রশ্ন রেখে চলে গেলেন রাফা :
২৩ বছরের তরুণী জারিন তাসনিম রাফা। তিনি স্বপ্ন দেখতেন, একজন নামকরা চিকিৎসক হবেন। সমাজের অসহায় গরিব মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দেবেন। শিক্ষাজীবনের প্রতিটি সিঁড়ি বেয়ে স্বপ্ন পূরণের কাছাকাছি এসেও তা অধরাই রয়ে গেল তার। আদ দ্বীন উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী জারিন তাসনিম রাফা ১৩ জুলাই দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় মারা যান। এর তিন মাস আগে ক্যান্সারে আক্রান্ত হন রাফা। অসুস্থ অবস্থায় এক চিঠিতে তিনি লেখে যান, ‘প্রশ্ন রেখে গেলাম, আমি কি বাঁচতে পারতাম না?’

চলে গেলেন রফিক শিকদারের মা :
এভাবে তার যাওয়ার কথা ছিল না। এসেছিলেন সুস্থ হতে। কিন্ত সুস্থ না হয়ে ফিরলেন লাশ হয়ে। ৩১ অক্টোবর রাত ১০টায় রফিক শিকদারের মা রওশন আরা (৫৫) না ফেরার দেশে চলে যান। সংবাদ সম্মেলন করে ভুল চিকিৎসায় নিজের মায়ের দুই কিডনি হারানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার দাবি করেন রওশন আরার ছেলে চলচ্চিত্র পরিচালক রফিক শিকদার। তার মায়ের এক কিডনি অপসারণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্ত্রোপচারের পরে দেখেন তার মায়ের অন্য কিডনিটিও নেই।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ ডিসেম্বর ২০১৮/সাওন/সাইফুল

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       
Walton AC
Marcel Fridge