ঢাকা, রবিবার, ৫ মাঘ ১৪২৬, ১৯ জানুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

প্লাস্টিক বর্জন করল স্যামসাং

মো. রায়হান কবির : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-২৮ ২:৫৫:৪৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-২৮ ২:৫৫:৪৭ পিএম

মো. রায়হান কবির : প্লাস্টিকের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে সবারই জানা আছে। কিন্তু প্লাস্টিকের ব্যবহার কমানোর কোনো উদ্যোগ কারো ভেতরই তেমন দেখা যায়না। আমাদের দেশেও প্লাস্টিকের ব্যাগ নিষিদ্ধ হলেও হাট-বাজার এমনকি শপিং মলেও দেদারে চলছে প্লাস্টিক।

অথচ প্লাস্টিকের বর্জ্যে যে শুধু পরিবেশই বিপর্যয় হচ্ছে তা না, হুমকির মুখে পরছে পশুপাখি এবং মাছের জীবনও। কিছুদিন আগে একটি তিমির পেটে পাওয়া গেছে কয়েক কেজি প্লাস্টিক! তাই প্লাস্টিকের ব্যবহার কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ দরকার।

সুখের বিষয় হলো কিছু কিছু বড় প্রতিষ্ঠান প্লাস্টিকের ব্যবহার কমিয়ে দিচ্ছে। তার মধ্যে অন্যতম স্যামসাং। স্যামসাং এর আগেও ফোন বিক্রির বক্সে ফোন হোল্ডার হিসেবে কাগজের মণ্ডের বাক্স ব্যবহার করেছিল। এবার তারা ফোন মোড়কের জন্য প্লাস্টিকের বদলে বায়ো-প্লাস্টিক ব্যবহার করছে যা পুনরায় ব্যবহার যোগ্য।

সবচেয়ে বড় কথা স্যামসাং তাদের চার্জারেও এনেছে পরিবর্তন, তাও শুধু প্লাস্টিকের ব্যবহার কমানোর জন্য! স্যামসাং এর চার্জার সাধারণত চকচকে হয়। আর সেই চকচকে ভাব ধরে রাখার জন্য সেটাকে মুড়ে রাখতে হতো প্লাস্টিকে। যেন এর চাকচিক্য নষ্ট না হয়। এখন থেকে ম্যাট বা চাকচিক্যহীন চার্জার ব্যবহার করবে স্যামসাং, যাতে এর চাকচিক্য ধরে রাখতে প্লাস্টিকের দরকার না হয়। স্যামসাং শুধু মোবাইল নয় তাদের অন্যান্য হোম অ্যাপ্লায়েন্সেও বায়ো প্লাস্টিক বা পরিবেশবান্ধব প্লাস্টিক ব্যবহার করবে। এজন্য তারা নতুন ধরনের উপাদান যেমন, আখের ছোবড়া, শস্যের বর্জ্য কিংবা উদ্ভিদ ফ্যাট দ্বারা তৈরি কাগজে মোড়কীকরণ করবে।

তবে শুধু স্যামসাংই নয়, অ্যাপলও চাচ্ছে তাদের পণ্যে প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাতে। সবাই এখন পরিবেশবান্ধব কাগজ বা প্লাস্টিক ব্যবহারে সচেতন। এখন সচেতন হওয়ার পালা সাধারণ মানুষের। কারণ প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবহারের চেয়ে গণহারে প্লাস্টিকের ব্যবহার অনেক। তাই পরিবেশ বাঁচাতে সবাইকে সচেতন ভাবে প্লাস্টিক বর্জন করতে হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৮ জানুয়ারি ২০১৯/ফিরোজ